উইন্ডিজের কাছে হেরে বিপদে অস্ট্রেলিয়া

west indes
সমাজের কথা ডেস্ক॥ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টেনের রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে অস্ট্রেলিয়াকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে গতবারের চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
তিন খেলায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের টানা দ্বিতীয় জয়। অন্যদিকে শিরোপা প্রত্যাশী অস্ট্রেলিয়ার টানা দ্বিতীয় হার। এই হারে সেমি-ফাইনালে সম্ভাবনা প্রায় শেষ হয়ে গেল দলটির।
শুক্রবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেটে ১৭৮ রান করে অস্ট্রেলিয়া। জবাবে ২ বল বাকি থাকতে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ক্রিস গেইলের সঙ্গে ডোয়াইন স্মিথের ৫ ওভার স্থায়ী ৫০ রানের উদ্বোধনী জুটি ওয়েস্ট ইন্ডিজকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেয়। দ্বিতীয় উইকেটে লেন্ডল সিমন্সের সঙ্গে ৫১ রানের জুটি উপহার দেন গেইল।
দলকে ১ উইকেটে ১০১ রানের দৃঢ় অবস্থানে রেখে বিদায় নেন গেইল (৫৩)। তার ৩৫ বলের ইনিংসে ছিল ৬টি চার ও ২টি ছক্কা। প্রথম ১১ বলে ৩০ রান সংগ্রহ করা গেইলের শেষ ২৩ রান আসে ২৪ বল থেকে।
এরপর সিমন্সও দ্রুত বিদায় নিলে বিপদে পড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এক সময়ে ১৮ বলে ৪২ রানের প্রয়োজন ছিল দলটির। অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি (১৩ বলে অপরাজিত ৩৪) ও ডোয়াইন ব্রভোর (১২ বলে অপরাজিত ২৭) ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ২ বল থাকতেই সেই লক্ষ্যে পেরিয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
শেষ ওভারে ১২ রান প্রয়োজন ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের। প্রথম দুই বল থেকে কোনো রান নিতে পারেননি স্যামি। তবে তৃতীয় ও চতুর্থ বলে দুটি ছক্কা হাঁকিয়ে দলকে জয় এনে দেন তিনি।
লংঅফের দিকে শেষ ছক্কাটি হওয়ার আগেই নিজেদের প্যাভিলিয়নের দিকে দৌড় দেন স্যামি। অন্য প্রান্তে থাকা ব্রাভোও কম যাননি, হাতের ব্যাট ছুড়ে দিয়ে ছুটেন জয় উদযাপন করতে মাঠে চলে আসা সতীর্থদের দিকে। গত বিশ্বকাপ জয় ‘গ্যাংনাম’ স্টইলে নেচে উদযাপন করেছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটাররা। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জিতেই এবার শিরোপা উৎসব করে ফেলেছেন তারা।
ওয়েস্ট ইন্ডিজের এটাই সর্বোচ্চ রানের লক্ষ্য তাড়া করে জয়। আগের রেকর্ডও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষেই ছিল। ২০০৯ সালের বিশ্বকাপে ১৭০ রানের লক্ষ্য তাড়া করেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
এর আগে ২২ বলে ৩৩ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়ে দলকে উড়ন্ত সূচনা এনে দিয়েছিলেন অ্যারন ফিঞ্চ ও ডেভিড ওয়ার্নার। তবে ৮ রানের ব্যবধানে প্রথম তিন ব্যাটসম্যানের বিদায়ে খেলায় ফিরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
তবে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের স্বস্তি বেশিক্ষণ টেকেনি। গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের (২২ বলে ৪৫) ঝড়ো ব্যাটিংয়ে দ্বাদশ ওভারেই একশ’ রানে পৌঁছে যায় অস্ট্রেলিয়া।
দলীয় একশ’ রানে ম্যাক্সওয়েলের বিদায়ের পর চোট কাটিয়ে দলে ফেরা জেমস ফকনারের (১৩) সঙ্গে ব্র্যাড হজের (২৬ বলে ৩৫) ৩৮ বল স্থায়ী ৫২ রানের জুটিতে লড়াইয়ের পুঁজি গড়ে অস্ট্রেলিয়া।
ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইন্ডিজের পক্ষে সুনীল নারায়ণ, মারলন স্যামুয়েলস ও বদ্রি দুটি করে উইকেট নেন।

শেয়ার