অ্যান্ড্রয়েডচালিত স্মার্ট লাইটে ব্লুটুথ স্পিকার

amartlight
সমাজের কথা ডেস্ক॥ ঘরের বাতি বন্ধ করতে এখন আর সুইচের প্রয়োজন হবে না। এমনকি প্রয়োজনে বাতির আলো বাড়ানো ও কমানোর কাজটি করা যাবে অ্যান্ড্রয়েড ফোনের মাধ্যমে।

সম্প্রতি কোরিয়ার বাজারে এমনই এক স্মার্টলাইট বিক্রি শুরু করেছে দেশটির শীর্ষ ইলেকট্রনিক্স পণ্য নির্মাতা এলজি।

স্মার্টলাইটটির রয়েছে বেশ কয়েকটি অভিনব ফিচার। অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনে কল আসলে বারবার জ্বলে-নিভে বাড়ির কর্তাকে জানান দেবে এলজির স্মার্টলাইটটি।

বাড়িতে কেউ না থাকলেও চিন্তা নেই। নিরাপত্তার জন্য এতে আছে বিশেষ সিকিউরিটি ফিচার, যা দরুন বাইরে থেকে কেউ তাকালে ভাববে বাড়িতেই আছেন কর্তা। এছাড়াও গানের তালের সঙ্গে জ্বলবে নিভবে বাতিটি।

এলজি জানিয়েছে, প্রতিদিন পাঁচ ঘণ্টা করে ‘এলজি স্মার্ট লাইট’ ব্যবহার করলে টানা ১০ বছর চলবে। ১০ ওয়াটের প্রতিটি বাতির দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৮ ডলার।

এদিকে এলজির থেকেও যেন একধাপ এগিয়ে ফ্রান্সভিত্তিক তারবিহীন ইলেক্ট্রনিক্স পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এডব্লিউওএক্স । ঘড় আলোকিত করা ছাড়াও একের ভেতর দুই হিসেবে ব্লুটুথ স্পিকারের কাজও করবে প্রতিষ্ঠানটির তৈরি নতুন ‘স্ট্রিমলাইট’ ।

স্মার্ট লাইটটিতে আছে এলইডি বাতি। সঙ্গে ব্লুটুথ স্পিকার থাকায় গানও শোনা যাবে। এটি নিয়ন্ত্রণের জন্য এডব্লিউওএক্স বানিয়েছে ‘স্মার্ট কন্ট্রোল অ্যাপ’। যার বদৌলতে স্মার্টফোন ছাড়াও ম্যাক ওএস এক্স আর উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের ডেস্কটপ কম্পিউটার থেকেও নিয়ন্ত্রণ করা যাবে স্ট্রিমলাইট।

অ্যাপটি দিয়ে কমানো বাড়ানো যাবে বাতির উজ্জ্বলতা, দেওয়া যাবে অ্যালার্ম, কমানো বাড়ানো যাবে স্পিকারের ভলিউম।

প্রযুক্তি সংবাদবিষয়ক সাইট ম্যাশএবল জানিয়েছে, ১১০ ও ২২০ ভোল্টের স্মার্টলাইটে রয়েছে ১০ ওয়াট শক্তির ব্লুটুথ স্পিকার। ছোটখাটো একটা ঘর কাঁপিয়ে দেওয়ার জন্য যা যথেষ্ট।

স্ট্রিমলাইটের ওয়াই-ফাই ভার্সনও বানিয়েছে এডব্লিউওএক্স। একইভাবে কাজ করবে স্মার্টলাইট দুটি। স্মার্ট লাইটের দুটি ভার্সনেরই দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৯৯ ডলার। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বাজার দিয়েই যাত্রা শুরু করেছে স্ট্রিমলাইট।

শেয়ার