বিএনপি-জামায়াত ৫৫৩ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ক্ষতি করেছে

Bnp jamat
সমাজের কথা ডেস্ক॥ দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিএনপি-জামায়াত জোটের হরতাল, অবরোধে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগে মোট ৫৫৩টি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। প্রাথমিকভাবে এতে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ ৭ কোটি ৮২ লাখ টাকা।

বুধবার দশম জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে মো. নবী নেওয়াজের এক প্রশ্নের উত্তরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংসদকে এ তথ্য জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা স্তরের যে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ভোটকেন্দ্র হিসেবে ব্যবহারের জন্য নির্ধারণ করা হয়েছিলো সে সব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১২৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিএনপি জামায়াতের হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ৮৭টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যার মধ্যে ৫টি সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত। প্রাথমিক তথ্যানুযায়ী ক্ষতির পরিমাণ এক কোটি ৮০ লাখ টাকা। এ ছাড়া ১২ কলেজ/ স্কুল অ্যান্ড কলেজ আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, যার ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ২৫ লাখ টাকা। ২৬টি মাদ্রাসা আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে ক্ষতির পরিমাণ ২২ লাখ টাকা। এছাড়া ৪২৮টি প্রাথমিক বিদ্যালয় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় ৫ কোটি ৫৫ লাখ টাকা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ প্রদানপূর্বক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের স্বাভাবিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সর্বোচ্চ গুরুত্ব প্রদান করেছে। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জরুরি ভিত্তিতে মেরামত ও সংস্কারের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচিতে মেরামত ও সংস্কার খাতে বরাদ্দকৃত অর্থ হতে সামর্থ্য অনুযায়ী আর্থিক সহায়তা প্রদানের নিমিত্তে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত ৪২৮টি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংস্কারের জন্য প্রাক্কলন অনুযায়ী বিদ্যালয়সমূহের অনুকূলে এ পর্যন্ত ৩ কোটি ৫২ হাজার পাঁচ’শ কোটি টাকা ছাড় করা হয়েছে। তাছাড়া তৃতীয় প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে চলতি অর্থ বছরে ইতোমধ্যে ৪৩ কোটি ২০ লাখ ৫০ হাজার টাকা ছাড় করা হয়েছে যা প্রয়োনীয়তার ভিত্তিতে প্রাথমিক বিদ্যালয় মেরামতে ও সংস্কার কাজে ব্যয় করা হবে।

শেয়ার