১০ জোড়া যমজে ধন্দে শিক্ষক

sets of twins
সমাজের কথা ডেস্ক॥ চীনে উহান সিটির এক প্রাইমারি স্কুলে ক্লাস নিতে গিয়ে ১০ জোড়া যমজ শিশু দেখে ধাঁধায় পড়ে শেষমেষ ক্লাস ছেড়ে বেরিয়ে গেছেন শিক্ষক।
নতুন বছরের ওই ক্লাসে ২২ শিশুর ২০ জনই যমজ। তারা সবাই স্কুল ইউনিফর্ম পরা থাকায় তাদেরকে আলাদা করে চিনতে বেশ অসুবিধাতেই পড়ে যান শিক্ষক জু ফেই।
১০ জোড়া যমজের মধ্যে ৯ জোড়াই ‘আইডেন্টিকাল টুইন’ ছিল জানিয়ে ফেই বলেন, এতে করে শিশুদেরকে কোনো প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করা এমনকি ক্লাসে কথা বলা বা অন্য কোনো দুষ্টুমির জন্য কোনো শিশুকে ওয়ার্নিং দিতেও সমস্যায় পড়েন তিনি।
তবে পরে অবশ্য শিশুদেরকে দেখতে দেখতে তাদের মধ্যে ছোটখাট পার্থক্য ধীরে ধীরে বুঝতে পারছেন এবং তাদেরকে পড়াতে অভ্যস্ত হয়ে উঠছেন বলে জানান ফেই।
একেবারে দেখতে একইরকম যমজ শিশুকেও আলাদাভাবে চেনার লক্ষণ বর্ণনা করতে গিয়ে ফেই দুই কন্যা শিশু কাও ইয়ানফান এবং কাও ইয়ানলিনের উদাহরণ দেন।
“এ দুজনকে আলাদা করে চেনার উপায় হচ্ছে একজনের কপালে তিল আছে, আরেকজনের নেই” বলেন তিনি। অন্যান্য শিশুদের মধ্যেও এরকম অনেক পার্থক্য আছে এবং ছেলে শিশুদের মধ্যে হাতের আকারে পার্থক্য আছে বলেও জানান ফেই।
আইডেন্টিকাল টুইনের মধ্যে সবচে মজার যে ব্যাপারটি লক্ষ্য করেছেন সে ব্যাপারে ফেই বলেন, একজনকে একটা কিছু বললে তার যে প্রতিক্রিয়া হয় অপরজন্ও ঠিক একই প্রতিক্রিয়া হয়।
স্কুল কর্তৃপক্ষ বলছে, অঞ্চলটিতে খুব বেশি যমজ শিশু নেই। তবে এক ক্লাসে এতগুলো যমজ শিশুর উপস্থিতি কাকতালীয় ব্যাপার।

শেয়ার