শংকরপুরে একজনকে কুপিয়ে জখম

kupea jokhom
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোর শহরের শংকরপুর মুরগী ফার্ম এলাকায় দুর্বৃত্তদের হাতে জখম মামুনকে গতকালই ঢাকায় নেয়া হয়েছে। তিনি শঙ্কামুক্ত নয় বলে জানিয়েছেন যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের এক চিকিৎসক। তিনি ওই এলাকার মুরাদ আলীর ছেলে।
আহতের স্বজনরা জানান, গতকাল দুপুরের দিকে রেললাইনের পাশে একদল মাদক ব্যবসায়ী তাদের ব্যবসা সংক্রান্ত দ্বন্দ্বে বাকবিতন্ডা বাধায়। এক পর্যায়ে তারা মারামারি শুরু করলে মামুন ঠেকাতে যায়। এ সময় এলাকার আলীমের ছেলে আকাশ ও সলেমানের ছেলে সেলিক তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে যশোর মেডিকেল হাসপাতালে নেয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে ঢাকায় রেফার্ড করা হয়। অপর একটি সুত্রের দাবি, মামুন নিজেও মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। ব্যবসায়ীক কোন্দলের জের ধরে তাকে প্রতিপক্ষরা কুপিয়েছে। হাসপাতালের ডাক্তার একে আলম জানান, মামুনের বুকে ধারালো অস্ত্র গভীর ক্ষত করেছে। এছাড়া কিডনিতেও ক্ষত হয়েছে। হাসপাতালে আনার আগেই প্রচুর রক্ত ক্ষরণ হয়েছে। সবমিলিয়ে তাকে শঙ্কামুক্ত বলা যাচ্ছে না।

SHARE