মৌলবাদী গোষ্ঠীকে রুখে দেয়ার শপথ নারীনেত্রীদের

image
সমাজের কথা ডেস্ক॥ নির্যাতিতাদের পাশে শক্তিশালী হয়ে দাঁড়িয়ে ধর্মান্ধ-মৌলবাদী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার শপথ নিলেন নারীনেত্রীরা।
চাঁপাইনবাবগঞ্জের ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য নূরজাহান বেগমের ওপর হামলার প্রতিবাদে শনিবার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ‘ঐক্যবদ্ধ নারী সমাজ’ ব্যানারে এক সমাবেশে এই শপথ নেন তারা।
গত ২২ জানুয়ারি রাতে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে স্থানীয় সাংসদ গোলাম রব্বানীর বাড়ি থেকে ফেরার সময় একদল দুর্বৃত্ত মোবারকপুর ইউনিয়নের নারী সদস্য ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা নূরজাহানের ওপর হামলা চালিয়ে তার হাত-পায়ের রগ কেটে দেয়।
তার প্রতিবাদে শহীদ মিনারের সমাবেশে মহিলা পরিষদের সভানেত্রী আয়েশা খানম বলেন, সমাজের সকল স্তরে নারীরা তাদের কর্মদতার পরিচয় দিয়ে দায়িত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছেন।
“কিন্তু একটি মহল, যারা ধর্মন্ধ ও মৌলবাদী চক্র, তারা নারীর অগ্রযাত্রাকে রুখে দিতে চায়। ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য নূরজাহানের ওপর হামলা তারই বড় দৃষ্টান্ত।”
আয়েশা খানম হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে নারী সমাজকে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান।
ঐক্যবদ্ধ নারী সমাজের সংগঠক তারানা হালিম বলেন, “হামলাকারীরা কেবল রগ কেটেই ান্ত হয়নি। শরীরের অন্যান্য ‘স্পর্শকাতর’ অঙ্গও কর্তন করেছে। কত বর্বর ও নরপশু হলে এ ধরনের হামলা করতে পারে, তা আমার জানা নেই।”
নূরজাহানের ওপর হামলার জন্য জামায়াতে ইসলামীকে দায়ী করা হচ্ছে, যা আসে আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য তারানা হালিমের কথায়ও।

SHARE