ভদকায় রুশদের অকাল মৃত্যু!

vodka
বাংলানিউজ॥ রাশিয়ায় বেশির ভাগ মানুষের অকাল মৃত্যুর পেছনে ভদকা দায়ী বলে সম্প্রতি প্রকাশিত এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে।

ভদকা গ্রহণের কারণে বেশিরভাগ রাশিয়ান ৫৫ বছর বয়সের কোটাও পার করতে পারছেন না। যেখানে যুক্তরাজ্যে মৃত্যের সংখ্যা শতকরা প্রায় ৭ ভাগ।

বিশ্ব বিখ্যাত মেডিকেল বিষয়ক ম্যাঙ্গাজিন ‘দ্য লানসেট’ গবেষণা রিপোর্টটি প্রকাশ করে।

গবেষণায় বলা হয়, রাশিয়ায় শতকরা ২৫ ভাগ মানুষ মারা যান অ্যালকোহল গ্রহণে। আর এর মধ্যে ভদকার ভূমিকা সবচেয়ে বেশি।

ভদকা গ্রহণে লিভার সংক্রমণ এবং মদপানের বিষক্রিয়াজনিত রোগে আক্রান্ত হওয়াই মৃত্যুর মূল কারণ।

অনেকে আবার অতিরিক্ত ভদকা খেয়ে দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন অথবা মাতাল হয়ে জ্ঞান হারিয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছেন।

মস্কোর রাশিয়ান ক্যান্সার সেন্টার, অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এবং ফ্রান্সে অবস্থিত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (হু) আন্তর্জাতিক ক্যান্সার গবেষণা সংস্থার গবেষকরা গবেষণাটি পরিচালনা করেন।

গবেষকরা রাশিয়ার ৩টি প্রধান শহরে মদপানে অভ্যস্ত এমন এক লাখ ৫১ হাজার প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের ওপর ১০ বছর ধরে গবেষণাটি পরিচালনা করেন। এ সময়ের মধ্যে মদপানে অভ্যস্ত আট হাজার মানুষ মারা যান।

এছাড়া রাশিয়ায় প্রায় ৪৯ হাজার মানুষ মারা যাওয়ার কারণ হিসেবে তাদের আত্মীয়রা জানান, মদপান গ্রহণের অভ্যাসই তাদের মৃত্যুর জন্য দায়ী।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক স্যার রিচার্ড পেতো বলেন, গত ৩০ বছর ধরে রুশদের মধ্যে মদপান, বিশেষ করে ভদকা পানের প্রবণতা বৃদ্ধি পেয়েছে।
বর্তমানে রুশ নারীদের মধ্যেও অ্যালকোহল গ্রহণের প্রবণতা বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে নৈতিকতার কারণে পুরুষদের চেয়ে নারীরা কমই পান করে থাকেন।
রাশিয়ায় আধা লিটার ভদকার দাম ৩ ইউরো। একজন প্রাপ্ত বয়স্ক ব্যক্তি সপ্তাহে এক থেকে দেড় লিটার মদপান করেন বলে গবেষণায় বলা হয়।
২০১১ সালের এক প্রতিবেদনে দেখা যায়, রাশিয়ায় প্রত্যেক প্রাপ্ত বয়স্ক ব্যক্তি বছরে গড়ে ১৩ লিটার অ্যালকোহল গ্রহণ করেন।যার মধ্যে প্রায় ৮ লিটারই ভদকা। যেখানে যুক্তরাজ্যে একজন প্রাপ্ত বয়স্ক ব্যক্তি পান করেন ১০ লিটার, যার ২ লিটারই স্পিরিট। তাই গবেষকদের ধারণা, ভদকাই রুশদের মৃত্যুর প্রধান কারণ।

SHARE