রায়ে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা হয়েছে

urms
বাংলানিউজ ॥
দশ ট্রাক অস্ত্র মামলার রায়কে ইতিবাচক উল্লেখ করে আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেছেন, এই রায়ের মাধ্যমে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় বর্তমান সরকারের অঙ্গীকারের প্রতিফলন ঘটেছে।
দশ ট্রাক অস্ত্র মামলার রায় ঘোষণার পর বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের কাছে দেওয়া তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি একথা বলেন।
দশ বছর আগে চট্টগ্রামে খালাসের সময় ১০ ট্রাক অস্ত্র-গোলাবারুদ আটকের মামলায় বৃহস্পতিবার সাবেক শিল্পমন্ত্রী ও জামায়াত নেতা মতিউর রহমান নিজামী এবং সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবরসহ ১৪ আসামির মৃত্যুদ-াদেশ ও যাবজ্জীবন সাজা দিয়েছেন আদালত।
প্রতিক্রিয়ায় আইনমন্ত্রী বলেন, সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত যে রায়ে উপনীত হয়েছে, এই রায়ের মধ্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করার যে অঙ্গীকার রয়েছে, তার প্রতিফলন হয়েছে।
আইনমন্ত্রী বলেন, দশ ট্রাক অস্ত্র মামলা বিগত সরকারের উচ্চ পর্যায়ের যোগসাজশে অপরাধ করা এবং সন্ত্রাসকে উৎসাহিত করার একটা পদক্ষেপ ছিল। সেক্ষেত্রে এই মামলার রায়ের পর এরকম অপরাধ ভবিষতে কেউ করতে অত্যন্ত সতর্ক থাকবে।
রায়কে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন বলে জানান আইনমন্ত্রী।
ওই ঘটনা দেশের সার্বভৌমত্বের জন্য হুমকি ছিল কিনা- জানতে চাইলে আইনমন্ত্রী বলেন, প্রায় মিনি ক্যান্টনমেন্টে আর্মস দেওয়ার মত আর্মস এসেছিল। কাদের জন্য এসেছিল তা তদন্তে উদঘাটিত হয়েছে। যাদের হাতে যাওয়ার জন্য অস্ত্রগুলো এসেছিল, যদি সত্যি সত্যি তাদের হাতে পৌঁছতো এবং একসময় উদঘাটিত হতো যে এতে সহায়তা করেছে বাংলাদেশ সরকার, তাহলে নিশ্চয় দেখা যেতো রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস উৎসাহিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট দেশের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ তৈরি হতো।

SHARE