বাংলা একাডেমী পুরস্কার পাচ্ছেন হেলাল হাফিজ

Helal Hafiz
সমাজের কথা ডেস্ক॥ চলতি বছর বাংলা একাডেমী পুরস্কার পেতে যাচ্ছেন কবি হেলাল হাফিজ।
তিনিসহ পুরস্কারের জন্য মনোনীত ১১ জনের নাম বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে ঘোষণা করেছেন একাডেমীর মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান।

কবিতায় পুরস্কার পাচ্ছেন ৬৪ বছর বয়সী হেলাল হাফিজ। ১৯৮৬ সালে প্রকাশিত তার প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘যে জ্বলে আগুন জ্বলে’ ব্যাপক সাড়া ফেলে।

ওই গ্রন্থটির ১২টি সংস্করণ প্রকাশিত হলেও এরপর গ্রন্থ প্রকাশের ক্ষেত্রে তার নিস্পৃহতা দেখা যায়। ২৬ বছর পর ২০১২ সালে আসে তার দ্বিতীয় কাব্যগ্রন্থ ‘কবিতা একাত্তর’।
নেত্রকোনায় জন্ম নেয়া হেলাল হাফিজ পড়াশোনা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। সাংবাদিক হিসেবেও কাজ করেছেন তিনি।
হেলাল হাফিজের সঙ্গে এবার কথাসাহিত্যে পুরস্কার পেতে যাচ্ছেন কথাসাহিত্যে পূরবী বসু এবং প্রবন্ধে মফিদুল হক।
গবেষণায় পুরস্কার পাচ্ছেন দুজন জামিল চৌধুরী ও প্রভাংশু ত্রিপুরা, অনুবাদে কায়সার হক, মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক সাহিত্যে হারুণ হাবীব। আত্মজীবনী/স্মৃতি কথা/ভ্রমণ কাহিনীতে মাহফুজুর রহমান, বিজ্ঞান প্রযুক্তি ও পরিবেশে শহীদুল ইসলাম পুরস্কার পাচ্ছেন।
শিশু সাহিত্যে কাইজার চৌধুরী ও আসলাম সানী এবছর পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন।
একাডেমীর মহাপরিচালক শামসুজ্জামান জানান, আগামী শনিবার অমর একুশে গ্রন্থমেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মনোনীতদের হাতে পুরস্কার তুলে দেবেন।
গত বছরের মতো এবারো নাটকে কেউ পুরস্কার পাচ্ছেন না। এজন্য ভালো নাটক না পাওয়াকে কারণ দেখান শামসুজ্জামান খান।
এর আগে মেলার মাঝামাঝি সময়ে পুরস্কারের জন্য মনোনীতদের নাম ঘোষণা করা হয় এবং মেলার শেষদিকে পুরস্কার দেয়া হত। এই বছর ব্যতিক্রম হচ্ছে।
এর কারণ ব্যাখ্যা করে শামসুজ্জামান বলেন, “আমরা মূলত তিনটি বিষয়কে সামনে রেখে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি।
“প্রথমত, প্রধানমন্ত্রী পুরস্কার তুলে দিলে তা আরো মর্যাদার হবে। দ্বিতীয়ত, পুরস্কারপ্রাপ্তরা পুরো মাসজুড়ে আলোচনায় থাকতে পারবেন এবং তৃতীয়ত, মনোনয়ন সঠিক হয়েছে কি না, পাঠক তা মূল্যায়ন করার সুযোগ পাবেন।”

SHARE