তারেকের শাশুড়ির বিরুদ্ধে মামলা দুদকের

tareq mother
বাংলানিউজ ॥
নির্দিষ্ট সময়ে সম্পদ বিবরণী জমা না দেওয়ায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট তারেক রহমানের শাশুড়ি সৈয়দা ইকবাল মান্দ বানুর বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।
বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে দুদকের উপ পরিচালক আর কে মজুমদার বাদি হয়ে রমনা থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর বাদি বাংলানিউজকে নিশ্চিত করেন।
মামলা দায়েরের আগে সৈয়দা ইকবাল মান্দ বানুর পক্ষে তার আইনজীবী বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক নাসির উদ্দিন অসীম ও নির্বাহী সদস্য অ্যাড. জাকির হোসেন ভূইয়া পূণরায় সম্পদের নোটিশ পাঠানোর আবেদনের জন্য ত্রিশ দিন সময় চেয়েছিলেন। দুদকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, কমিশন মামলা অনুমোদন দেওয়ার পর মামলা থেকে পেছানোর কোনো সুযোগ নেই।
এদিকে, গত মঙ্গলবার কমিশনের নিয়মিত বৈঠকে তারেক রহমানের শাশুড়ির বিরুদ্ধে মামলা করার অনুমোদন দেয় কমিশন। সম্পদ বিবরণীর নোটিশ জারির পর কমিশনে নির্দিষ্ট সময়ে সম্পদের হিসাব দাখিল না করার অপরাধে তার বিরুদ্ধে নন-সাবমিশন মামলার অনুমোদন দেওয়া হয়।
দুদক সূত্র জানায়, ২০১২ সালের ২৫ জানুয়ারি ইকবাল মান্দ বানুর বরাবর সম্পদ বিবরণী দাখিলের নোটিশ জারি করে দুদক। ওই নোটিশ ইকবাল মান্দ বানুর পক্ষে তার বাড়ির তত্ত্বাবধায়ক জাকির হোসেন গ্রহণ করেন। অভিযুক্ত ইকবাল মান্দ বানুর বরাবর সম্পদ বিবরণী দাখিলের নোটিশ জারি করা হলে তিনি ওই নোটিশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের রিট পিটিশন (রিট পিটিশন নং-৯৭৮/২০১২) দায়ের করেন এবং স্থগিতাদেশ প্রাপ্ত হন। পরবর্তী সময়ে কমিশনের পক্ষে আপিল বিভাগের চেম্বার জজ বরাবর সিভিল পিটিশন ফর লিভ টু আপিল (আপিল নং-৯৯১/১৩) দায়ের করা হলে হাইকোর্ট বিভাগের স্থগিতাদেশ স্থগিত করা হয়। আপিল বিভাগের সর্বশেষ ২০১৩ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর তারিখের আদেশে রিট পিটিশন নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত হাইকোর্ট বিভাগের স্থগিতাদেশ স্থগিত করা হয়। আপিল বিভাগের স্থগিতাদেশ রিট নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত বহাল থাকায় বর্তমানে ওই রিট সংশ্লিষ্ট দুদকের কার্যক্রম পরিচালনায় আইনগত কোনো বাধা না থাকায় কমিশন এ মামলার অনুমোদন দেয়।

SHARE