ফিলিপাইনে সেনা অভিযানে ৩৭ বিদ্রোহী নিহত

Philipine

বাংলানিউজ॥ ফিলিপাইনের দক্ষিণাঞ্চলে দুই দিনের সামরিক অভিযানে অন্তত ৩৭ বিদ্রোহী নিহত হয়েছে।
অবশ্য সেনাবাহিনীর এ দাবি প্রত্যাখ্যান করে বিদ্রোহী বাংসামরো গ্রুপের মুখপাত্র আবু মিসরি দাবি করেছেন, সেনাবাহিনীর গোলা ও বিমান থেকে চালানো রকেট হামলায় তাদের কেবল ৭ যোদ্ধা আহত হয়েছেন।
স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমগুলোর খবরে বলা হয়েছে, সেনা অভিযানকালে শত শত গ্রামবাসী ভয়ে তাদের ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছে।
এ ব্যাপারে দেশটির প্রেসিডেন্ট বিনিগনো একুইনো বলেন, এ অভিযান মিন্দানাওয়ের জনগণকে বিদ্রোহীদের হাত থেকে রক্ষা করবে।
সংবাদ মাধ্যমগুলো জানায়, সম্প্রতি সরকার ও মরো ইসলামিক লিবারেশন ফ্রন্ট’র (এমআইএফএফ) মধ্যে স্বাক্ষরিত একটি শান্তিচুক্তির বিরোধিতা করে এই সংঘর্ষে জড়ায় অন্য বিদ্রোহীরা।
স্বাক্ষরিত নতুন চুক্তিতে বলা হয়, মিন্দানাওয়ের স্বায়ত্তশাসনের বিনিময়ে মরো বিদ্রোহীরা তাদের অস্ত্র সরকারের কাছে জমা দেবে। কিন্তু, এই চুক্তির বিরোধিতা করে অপর বিদ্রোহী গ্রুপ ‘বাংসামরো ইসলামিক ফ্রিডম ফাইটার’ (বিআইএফএফ) বলছে, মরো বিদ্রোহীরা ওই চুক্তির মাধ্যমে সরকারকে খুব বেশি ছাড় দিয়েছে।
এজন্য বিদ্রোহী এ গ্রুপ সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।
বিআইএফএফ’র দাবি, এই চুক্তি দক্ষিণাঞ্চলে সংখ্যালঘু মুসলমানদের জন্য আলাদা মাতৃভূমি সৃষ্টিতে সহায়ক হবে না।
গত সপ্তাহে সরকারের সঙ্গে চূড়ান্ত পর্যায়ে চুক্তিতে পৌঁছায় মরো বিদ্রোহীরা। এর আগে, ২০১২ সালের অক্টোবরে মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে মরো বিদ্রোহীদের সঙ্গে এক ঐতিহাসিক চুক্তি করে ফিলিপাইন সরকার।
এটি সম্পূর্ণরূপে বাস্তবায়িত হলে দেশটিতে চলমান চার দশকের রক্তক্ষয়ী সংঘাত বন্ধ হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

SHARE