নতুন উন্মাদনার স্মার্টফোন

experia
বাংলানিউজ ॥ স্মার্টফোন বাজারের জনপ্রিয়তা এখন তুঙ্গে। এরই মধ্যে স্যামসাং, নকিয়া, এলজি, এইচটিসি এবং অ্যাপল স্মার্টফোনের উন্মাদনায় ভালোই উত্তাপ ছড়িয়েছে। এশিয়ার বাজারে আসন্ন স্মার্টফোন নিয়ে নতুন বছরের চলছে অন্তহীন জল্পনা-কল্পনা।

নতুন স্মার্ট তালিকায় আসছে লেনোভো, আসুস, অ্যাসার, হুয়াওয়ে, জেডটিই এবং অ্যালকাটেল। স্মার্টফোনর জনপ্রিয়তার পথে দামের আধিক্য একটি অন্যতম বাধা। তবে পকেটেই বহনযোগ্য ইন্টারনেট আর টাচস্ক্রিন সুবিধায় চলতি বছরের পুরোটা সময়েই আলোচনার শীর্ষে থাকবে স্মার্টফোন।

সদ্য শুরু হওয়া নতুন বছরে তাই নতুন ৮টি স্মার্টফোনের আগমনী বার্তা এসেছে। বাংলানিউজের পাঠকের জন্য নিচের সারিতে এসব স্মার্টফোনের তথ্যচিত্র সাজানো হলো।

(১) সনি এক্সপেরিয়া জেডওয়ান কমপ্যাক্ট
৪.৩ ইঞ্চি ডিসেপ্ল (৭২০ পিক্সেল)। ২০.৭ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা। আর শক্তি সরবরাহে আছে স্ন্যাপড্রাগন ৮০০ প্রসেসর। ২ জিবি র‌্যাম। ১৬ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। মাইক্রোএসডি কার্ড সমর্থিত। ব্যাটারি ২৩০০ অ্যাম্পিয়ার।

এটি অবয়বে দেখতে হুবহু আইফোন আদলের। আগের এক্সপেরিয়া জেডওয়ান মডেলের তুলনায় ফিচার এবং গুণগত মান বদলের সঙ্গে হার্ডওয়্যার প্যাকেজ সংযোজন করা হয়েছে। এটি স্মার্টফোন ওয়াটারপ্রুফ। এ কমপ্যাক্ট অবয়ব তৈরিতে অ্যালুমিনিয়াম-গ্ল্যাস প্রযুক্তির ব্যবহার করা হয়েছে।

(২) লেনোভো ভাইব জেড
এটি লেনোভো মডেলের প্রথম ফ্যাবলেট ঘরানার ফোরজি স্মার্টফোন। মূল ডিসপ্লে ৫.৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি আইপিএস (১০৮০ বাই ১৯২০ পিক্সেল)। এ মডেল ৭.৯ মিলিমিটার পাতলা। ওজন ১৪৭ গ্রাম।

২০.৭ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা। শক্তি সরবরাহে আছে ২.২ গিগাহার্টজ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন সিরিজের কোয়াড-কোর প্রসেসর। ২ জিবি র‌্যাম। ১৬ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ যা মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে বাড়ানো সম্ভব। ব্যাটারি ৩০০০ অ্যাম্পিয়ার।

(৩) আসুস জেনফোন ৬
৬ ইঞ্চি ডিসেপ্ল (৭২০ পিক্সেল)। ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা। ২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। শক্তি সরবরাহে আছে ২ গিগাহার্টজ ডুয়্যার-কোর ইন্টেল অ্যাটম জেড২৫৮০ প্রসেসর। এতে আছে হাইপার-থ্রেডিং প্রযুুক্তি। ১ জিবি র‌্যাম। ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ যা মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে বাড়ানো সম্ভব। ব্যাটারি ৩২৩০ অ্যাম্পিয়ার। অপারেটিং সিস্টেম পরিচালনায় আছে ৪.৩ জেলিবিন এবং জেনইউআই স্কিন।

(৪) অ্যাসার লিকুইড জেড৫
৫ ইঞ্চি ডিসেপ্ল (৮৫৪ বাই ৪৮০ পিক্সেল)। ৫ মেগাপিক্সেল রিয়ার এবং ভিজিএ ফ্রন্ট ক্যামেরা। প্রসেসর শক্তিতে আছে ১.৩ গিগাহার্টজ ডুয়্যাল-কোর মিডিয়াটেক প্রসেসর। ৫১২ মেগাবাইট র‌্যাম। ৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ যা মাইক্রোএসডি কার্ডের মধ্যে বর্ধিত করা যায়। ব্যাটারি ২০০০ অ্যাম্পিয়ার ফিক্সড। হার্ডওয়্যার প্যাকেজে বাড়তি সুবিধা ক্যামেরা লেন্স এবং শাটার।

(৫) হুয়াওয়ে অ্যাসেন্ড মেটটু
৬.১ ইঞ্চি ডিসেপ্ল (৭২০ পিক্সেল)। ২০.৭ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা। শক্তিতে আছে ১.৬ গিগাহার্টজ কোয়াড-কোর স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসর। ২ জিবি র‌্যাম। ব্যাটারি ৪০৫০ অ্যাম্পিয়ার। এটি ৪.৩ জেলিবিন অ্যানড্রইড অপারেটিং সিস্টেমে পরিচালিত।

(৬) জেডটিই নুবিয়া জেড৫এস
নির্মাতা চীন। ৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি ডিসেপ্ল (৭২০ পিক্সেল)। ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার এবং ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। আর শক্তি সরবরাহে আছে ২.৩ গিগাহার্টজ স্ন্যাপড্রাগন ৮০০ চিপ প্রসেসর। ২ জিবি র‌্যাম। ১৬ এবং ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। মাইক্রোএসডি কার্ড সমর্থিত। ব্যাটারি ২৩০০ অ্যাম্পিয়ার। এটি ইউএসপি প্রযুক্তির ফোরকে ভিডিও সমর্থন করে।

(৭) সনি এক্সপেরিয়া জেডওয়ান এস
সনির নতুন ঘরানার এ স্মার্টফোনটি এক্সপেরিয়া জেডওয়ান, এক্সপেরিয়া জেডওয়ান-এস মডেলের আদলেই তৈরি। এটি যুক্তরাষ্ট্রের টি-মোবাইল প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে বাজারে আসবে।

এটি অ্যালুমিনিয়াম বডিতে তৈরি। ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। মাইক্রোএসডি কার্ড সমর্থিত। ব্যাটারি ২৩০০ অ্যাম্পিয়ার।

(৮) অ্যালকাটেল আইডল এক্স প্লাস
৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি ডিসেপ্ল (৭২০ পিক্সেল)। ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা। ২ গিগাহার্টজ মিডিয়াটেক অকটা-কোর প্রসেসর। ২ জিবি র‌্যাম। ১৬ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। মাইক্রোএসডি কার্ড সমর্থিত। ব্যাটারি ২৫০০ অ্যাম্পিয়ার।

এ মডেলের সঙ্গে পাওয়া যাবে ব্লুটুথ ঘরানার স্মার্ট হাতঘড়ি। এটি স্মার্টপ্রেমীদের জন্য হাত ঘড়িতেই ইলেইল অ্যালার্ট এবং বিভিন্ন ধরনের ফিটনেস অ্যাপ ব্যবহারের অভুতপূর্ব সুযোগ করে দেবে। সব মিলিয়ে স্মার্টফোনের ত্রিমাত্রিক ভুবনে ২০১৪ সাল শুরুতেই একগুচ্ছ চমক হাজির করেছে।

বাংলাদেশ সময়: ০২২০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৬, ২০১৪

শেয়ার