আরেকটি টাইটানিক বানাবে চীন!

titanic
বাংলানিউজ॥ প্রায় শতাব্দীকাল আগে আটলান্টিক মহাসাগরের অতলে হারিয়ে যায় বিস্ময়জাহাজ টাইটানিক। সেই টাইটানিকেরই ‘রেপ্লিকা’ (প্রতিরূপ) তৈরির ঘোষণা দিয়েছে চীনের কোম্পানি ‘সেভেন স্টার’।

২৭০ মিটার (৮৮৫ ফুট) দীর্ঘ এ জাহাজ নির্মাণে আনুমানিক ব্যয় ধরা হয়েছে ১৬ কোটি ৫০ লাখ ডলার (১ হাজার ২৮১ কোটি ৪৭ লাখ টাকা)।

বার্তা সংস্থা সিনহুয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সেভেন স্টার’র প্রধান নির্বাহী সু শাওঝুন বলেন, টাইটানিক ডুবির সময় মানবতা যে দায়িত্ববোধের পরিচয় দেয় সেটা কোনো দেশের গণ্ডিতে আবদ্ধ ছিল না। এ ধরনের মানবতাবোধ ছড়িয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে আমরা জাহাজটি ‘পুননির্মাণের’ উদ্যোগ নিয়েছি।

ইতোমধ্যেই জাহাজের ডিজাইন শেষ হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, আশা করছি আগামী ২ বছরের মধ্যেই জাহাজের নির্মাণ কাজ শেষ হবে।

আটলান্টিকের রেপ্লিকা তৈরির এমন ঘোষণা অবশ্য এবারই প্রথম নয়। এর আগেও গত বছর অস্ট্রেলীয় ধনকুবের ক্লাইভ পালমার টাইটানিকের অনুকরণে সমুদ্র গমনোপযোগী একটি জাহাজ নির্মাণের ঘোষণা দেন। জাহাজটি ২০১৬ সাল নাগাদ আটলান্টিকে ভাসানো হবে বলেও জানানো হয় তখন।

উল্লেখ্য, ১৯১২ সালে উত্তর আটলান্টিক মহাসাগরের এক হিমশৈলীতে (আইসবার্গ) আঘাত লেগে টাইটানিক ডুবির ঘটনায় জাহাজটির ১৫০০ যাত্রী-ক্রু নিহত হন। এই স্মৃতির ওপর ভিত্তি করে ১৯৯৭ সালে কানাডীয় চলচ্চিত্র নির্মাতা জেমস ক্যামেরন নির্মাণ করেন বিখ্যাত হলিউড মুভি ‘টাইটানিক’।

ছবিটিতে ব্রিটিশ অভিনেতা লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিও এবং কেট উইন্সলেটের অভিনয় দর্শকদের মনে জাহাজটি সম্পর্কে এক ধরণের মোহাবেগের জন্ম দেয়।

শেয়ার