বিচার পাবো না, তাই চাইবও না!

shohag gazi
বাংলানিউজ ॥
বিচার পাবো না, তাই চাইবও না! কার কাছে অভিযোগ করবো, সবাই ‘ম্যানেজ’ হয়ে যায়। এদেশের সবচেয়ে খারাপ জাত হচ্ছে তারা (পুলিশ)। পুলিশের হাতে লাঞ্চিত জাতীয় ক্রিকেট দলের অলরাউন্ডার সোহাগ গাজী বাংলানিউজের কাছে এমনই ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।
বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর রূপনগর এলাকার নিজ বাসা থেকে বের হওয়ার সময় পুলিশের হাতে লাঞ্চিত হওয়ার ঘটনায় কোনো অভিযোগ করবেন কিনা- জানতে চাইলে তিনি এমন মন্তব্য করেন।
সোহগ গাজী বলেন, পুলিশ আমাকে বাসার সামনে যেভাবে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে লাঞ্চিত করেছে, তা প্রকাশ করার কোনো ভাষা আমার জানা নেই।
তিনি বলেন, দেশের সম্মানের জন্য আমরা পরিশ্রম করছি, আর তার বিনিময়ে এ রকম অবাঞ্চিত কোনো কিছু পাওয়া খুবই কষ্টকর। আমি এখনও এ বিষয়টি নিয়ে মানসিকভাবে বিব্রত।
তিনি আরও বলেন, ‘কিছু দিন আগে আমাদের দেশের গর্ব, বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব ভাইয়ের সঙ্গে এয়ারপোর্টে সিভিল এভিয়েশেনের এক নিরাপত্তা কর্মকর্তা দুর্ব্যবহার করেন। তিনি তার স্ত্রীকে বিদায় জানাতে বিমানবন্দরে গিয়েছিলেন।
এ ঘটনায় সে সময় সিভিল এভিয়েশনের এক পরিচালক শুধু দু:খ প্রকাশ করেন। জরিত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেননি।’
তিনি আক্ষেপ করে আরও বলেন, আমরা দেশের জন্য সম্মান নিয়ে আসি, আর এর বিনিময়ে পাই দুর্ব্যবহার আর লাঞ্চনা। এ সময় সোহাগ গাজী বলেন, এসব ঘটনার কি কোনো প্রতিকার নেই?
পুলিশের এ রকম আচরণে সোহাগ গাজী বলেন, যেখানে আমার সঙ্গে পুলিশ এ রকম আচরণ করতে পারে, সেখানে সাধারণ মানুষ তাদের কাছে কি আশা রাখতে পারে?
উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার রূপনগর আবাসিক এলাকার ৭ নম্বর রোডের নিজ ফ্ল্যাট (২০ নস্বর বাসা) থেকে বের হওয়ার সময় গাড়ি পাকিং করাকে কেন্দ্র করে রূপনগর থানার এক পুলিশ কর্মকর্তার হাতে লাঞ্চিত হন সোহাগ গাজী।
এ ঘটনার পর বিষয়টি বাংলানিউজসহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রচারিত হয়।
সোহাগ গাজীকে শারিরীকভাবে লাঞ্চিত করার ঘটনায় অভিযুক্ত রূপনগর থানার এএসআই ওহিদকে সাময়িকভাবে বরখাস্তের কথা বলা হলেও ‘আইওয়াস’ হিসেবে সিভিল টিম থেকে নামিয়ে দেওয়া হয়।
লাঞ্চনার ঘটনায় ইন্ধনদাতা একই থানার এসআই মঈনের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।
মিরপুর বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার ইমতিয়াজ আহমেদ বাংলানিউজকে জানান, জাতীয় দলের ক্রিকেটার সোহাগ গাজী ওই ঘটনায় লিখিত কোনো অভিযোগ দেননি। আর এ কারণে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।
এদিকে পুলিশের আচরণে ক্ষুদ্ধ সোহাগ গাজী রোববার বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে অভিযোগ করার কথা রয়েছে।
সোহাগগাজী বলেন, বৃহস্পতিবারের ঘটনা বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশ হওয়ার পর আমার সিনিয়র ও বিসিবি’র উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে বিষয়টি জানানো হয়েছে। বাকি সিন্ধান্ত বিসিবি সভাপতি দেশে ফেরার পর নেওয়া হবে বলে তাকে বিসিবি থেকে জাননো হয়।
এদিকে জাতীয় দলের খেলায়ারদের সঙ্গে খারাপ আচরণে ফুঁসে উঠছে বাংলাদেশ ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড। কিছুদিন আগে বিমানবন্দরে সাকিব আল হাসান, রূপনগরে নিজ বাসার সামনে সোহাগ গাজীকে লাঞ্চিত করার ঘটনায় জাতীয় দলের খেলোয়ারদের মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
বিসিবি মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বাংলানিউজকে জানান, সোহাগের বিষয়টি আমাদের জন্য লজ্জাজনক। এ বিষয়ে বিসিবি কতৃপক্ষ সিন্ধান্ত নিবে। বিসিবি’র পক্ষ থেকে বিষয়টি পুলিশের আইজিপিসহ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে জানানো হবে।

SHARE