রাজবন্দিদের মুক্তি দিচ্ছে মায়ানমার

Myanmar

বাংলানিউজ॥ বেশ কিছু রাজনৈতিক বন্দিকে মুক্তি দিচ্ছে মায়ানমার। মঙ্গলবার দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমগুলো জানায়, প্রেসিডেন্ট থেইন সেইনের ক্ষমা ঘোষণার প্রেক্ষিতে এসব বন্দিকে মুক্তি দেওয়া হচ্ছে।
তবে ঠিক কতোজন বন্দিকে মুক্তি দেওয়া হচ্ছে বিষয়ে স্পষ্ট কোনো বক্তব্য দেয়নি দেশটির সরকার। অবশ্য একটি সূত্র জানিয়েছে, ৪০ জন রাজবন্দি প্রেসিডেন্টের ক্ষমা ঘোষণার প্রেক্ষিতে মুক্তি পাচ্ছেন।
২০১০ সালে থেইন সেইন মায়ানমারের প্রেসিডেন্টের শাসনভার নেওয়ার পর দেশটির কয়েকশ’ রাজবন্দিকে মুক্তি দেওয়া হয়। এছাড়া, ২০১৩ সালের শেষ দিকে প্রায় সব রাজবন্দিকে মুক্তি দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছিলেন থেইন সেইন।
সোমবার সরকারি একটি অধ্যাদেশের বরাত দিয়ে দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন বার্তায় বলা হয়, সব ধরনের রাজবন্দিদের (আইন অনুযায়ী) মুক্তি দেওয়া হবে। এছাড়া, যাদের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা চলমান রয়েছে, সেগুলো বন্ধ করে তাদেরও দ্রুত মুক্তি দেওয়া হবে।
এদিকে, বন্দিদের বিষয়ে মানবাধিকার সংস্থাগুলো জানায়, মায়ানমারের সাবেক সামরিক সরকার আইন অমান্য করে প্রায় দুই হাজার মানুষকে বন্দি করেছে। যার মধ্যে বেশিরভাগই রাজনৈতিক বিরোধী, বিদ্রোহী ও সাংবাদিক।

শেয়ার