ঢাকায় এক বাড়ি থেকে ৬ জনের গলাকাটা লাশ উদ্ধার

gopibag
সমাজের কথা ডেস্ক॥ রাজধানীর গোপীবাগে একই বাড়িতে ছয় জনকে জবাই করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।
গোপীবাগের রামকৃষ্ণ মিশন রোডের ৬৪/৬ নম্বরে চার তলা ভবনের দ্বিতীয় তলায় এ ঘটনা ঘটেছে বলে ঘটনাস্থল থেকে জানাচ্ছেন কামাল হোসেন তালুকদার।

ওই ভবনের আশেপাশের বাসিন্দারা জানান, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ওই বাসা থেকে চিৎকার আসতে থাকে। এর পরই মানুষজন এগিয়ে যায়।

ছয় খুনের খবরে ঘটনাস্থলে বিপুল সংখ্যক মানুষ ভিড় করতে থাকে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের হিমশিম খেতে দেখা গেছে।

ওয়ারি জোনের উপ-কমিশনার ইলিয়াস শরীফ বলেন, “আমরা সন্ধ্যায় ওই ছয় জনের জবাই করার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই।”

ওই ভবনের পাশের ভবনের দোতলার বাসিন্দা মফিজ উদ্দিন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “পাশের ফ্লাট থেকে চিৎকার শুনতে পেয়ে আমি দৌড়ে যাই। পরে গিয়ে দেখি দরজার সামনে দুটি লাশ পড়ে আছে। একটি বয়স্ক লোকের এবং অপরজনের বয়স অনেকটা কম।”

বয়য়স্ক লোকটির নাম লুৎফুর রহমান ফারুক (৬০)। কিছুদিন আগে তারা বাসাটিতে উঠেছিলেন বলেও জানান তিনি।

ওয়ারি জোনের সহকারী কমিশনার মো. শাহেদ মিয়া জানান, নিহত ছয় জনের মধ্যে লুৎফর রহমান নিজেকে পীর বলে পরিচয় দিতেন।

নিহত অন্যরা হলো- তার ছেলে মনির হোসেন, বাড়ির কেয়ারটেকার মঞ্জু, পীরের মুরিদ শাহিন, রাসেল ও মুজিবুর রহমান।

শেয়ার