কলকাতায় এবার গাছ শুমারি

sumari
বাংলানিউজ॥
দিনের পর দিন কলেবরে বেড়েই চলছে ইট-কংক্রিটের শহর কলকাতা। সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে রাস্তাঘাট, গাড়ি, উড়ালসেতু কিংবা মেট্রো রেলের সংখ্যা। আর আধুনিক এই জীবন যাত্রার চাপে হারিয়ে যাচ্ছে প্রকৃতির প্রাণ গাছপালা। বহুতল ভবন নির্মাণেও কাটা পড়ছে প্রচুর গাছ। এমন সময়েই এক অভিনব উদ্যোগ নিল কলকাতা পৌরসভা। প্রথমবারের মতো কলকাতা শহরে শুরু হচ্ছে গাছ শুমারি।

এর আগে অবশ্য সরকার বা পৌরসভার নির্দেশে বিভিন্ন সময় গাছ লাগানো হলেও সরকারি ভাবে গাছ শুমারি এই প্রথম।

শহরের কোথায় কোন ধরনের গাছ আছে তার কোন মানচিত্র বা পরিসংখ্যাণ পৌরসভার কাছে নেই।

শহরের কোথায় প্রচুর পরিমাণে গাছ কেটে ফাঁকা করে দেওয়া হয়েছে, কোথায় কত বয়সের কত গাছ আছে কিংবা কোন জায়গায় নতুন করে গাছ কাটার অনুমতি দিলে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হবে, এ সব তথ্য হাতের নাগালে রাখতেই গাছ শুমারির এই উদ্যোগ কলকাতা পৌরসভার।

বিভিন্ন সময়ে বিক্ষিপ্ত ভাবে কলকাতা পৌরসভা, দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ, বন দপ্তর বা স্থানীয় থানার কাছে গাছ কাটা নিয়ে অভিযোগ জমা পড়ে। এর পর কিছুদিন হই-চই হয়। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয় না।

সরকারি বেসরকারি কোন প্রকল্পের জন্য কত গাছ কাটা হচ্ছে, বিকল্প গাছই বা কোথায় লাগানো হবে, তারও কোনো হিসাব রাখা হয় না।

কলকাতা পৌরসভার মেয়র পরিষদ (উদ্যান) দেবাশিস কুমার কলকাতার ১৪৪টি ওয়ার্ডেই এ শুমারি করা হবে বলে জানান।

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সহায়তায় শিগগিরই শুমারির কাজ শুরু হবে বলেও আশাবাদী তিনি।

শেয়ার