পছন্দের প্রার্থীকে ঝিনাইদহ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির পরিচালক নির্বাচনের পাঁয়তারা

কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি॥ আইন উপেক্ষা করে ঝিনাইদহ পল্লী বিদুৎ সমিতির এলাকা-৩ পরিচালক নির্বাচনে অনিয়মের মাধ্যমে পছন্দের ব্যক্তিকে নির্বাচিত করার পায়তারা চলছে। বিষয়টি তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নিতে এলাকাবাসী সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
ঝিনাইদহ পল্লী বিদুৎ সমিতিতে তিন বছর পর এলাকা পরিচালক নির্বাচন করা হয়। এ বছরও পরিচালক নির্বাচনের জন্য গত পহেলা ডিসেম্বর তারিখে তফসিল ঘোষনা করা হয়। সে মোতাবেক দুই জন প্রার্থী মনোনয়ন ক্রয় করে জমা দেন। এদের একজন মো ঃ ইসাহাক আলী পাঠান, অন্যজন মোস্তফা সাইদ। গত ১২ ডিসেম্বর কমিশন যাচাই-বাচাই করে মো ঃ ইসাহাক আলী পাঠানের মনোনয়ন বাতিল করে মোস্তফা সাইদের মনোনয়ন বৈধ্য বলে ঘোষণা দেয়া হয়। এ দিকে পল্লী বিদুৎ সমিতির আইনে বলা হয়েছে ”যিনি কোন রাজনৈতিক দল/ সংস্থায় কোন পদে নিয়োজিত আছেন” তিনি ওই পদে প্রার্থী হতে পারবেন না। এ আইন উপক্ষো করে সংশ্লিষ্টরা মোস্তফা সাইদ একটি দলের ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি থাকা সত্বেও তাকে বৈধ ঘোষনা করে চুড়ান্ত তালিকা প্রস্তুত করেছেন। যা আগামী বার্ষিক সাধারন সভায় ঘোষনা করা হবে বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে কথা হয় ওই পদের প্রার্থী মো ঃ ইসাহাক আলীর সঙ্গে, তিনি বলেন রাজনৈতিক পদ থাকায় আমার প্রার্থীতা বাতিল করা হয়েছে। অন্যদিকে একই দোষে দুষ্ট মোস্তফা সাইদের প্রার্থী বৈধ বলে ঘোষণা করেছেন কমিশন। আমার কোন রাজনৈতিক পদ আছে বলে জানা নেই। আর পদ থাকলে আমি গত দুই বছর যাবৎ ওই পদে নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব পালন করতে পারতাম না। এ বছরও একই কারনে এলাকা-২ এর পরিচালক প্রার্থী মশিয়ার রহমানরে প্রার্থীতা বাতিল করা হয়েছে। কথা হয় নির্বাচন কমিশনের সদস্য এজি,এম এম এস মোজাম্মেল হক এর সঙ্গে তিনি বলেন,পল্লী বিদুৎ সমিতি আইনের আওতায় না পড়ায় মোঃ ইসাহাক আলী পাঠানের প্রার্থীতা বাতিল করা হয়েছে। পুলিশি তদন্ত প্রতিবেদনের কথা উল্লেখ করলে তিনি বলেন, ওসি সাহেব প্রতিবেদন কি দিয়েছে তা আমার জানা নেই ,তবে পুলিশ সুপারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মোস্তফা সাইদ আগে দল করতেন। বতর্মানে তিনি দলের কোন কর্মকান্ডে নেই। নির্বাচন কমিশনের অন্য সদস্য সহকারী ইঞ্জিনিয়ার সিরাজুল ইসলাম বলেন, মোস্তফা সাইদ পল্লী বিদুৎ সমিতির আইনের আওতায় পড়ায় তাঁর প্রার্থীতা বৈধ করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নিতে এলাকাবাসী সংশ্লিষ্টদের আশুহস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। সাথে সাথে চুড়ান্ত প্রার্থী তালিকা বাতিল করে নির্বাচনের নতুন তফসিল ঘোষনার দাবী জানিয়েছেন।

শেয়ার