‘পাকিস্তানের বিপক্ষে পাশে পাইনি বিএনপিকে’

BPS
সমাজের কথা ডেস্ক॥ যুদ্ধাপরাধী আব্দুল কাদের মোল্লার ফাঁসি নিয়ে পাকিস্তান পার্লামেন্টের প্রস্তাবের বিষয়ে সংসদের পক্ষে নিন্দা জানাতে গিয়েও বিএনপির সাড়া পাননি বলে দাবি করেছেন প্রধান হুইপ আব্দুস শহীদ।
গত ১৩ অক্টোবর কাদের মোল্লার মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের পর পাকিস্তানে জামায়াতে ইসলামীর বিক্ষোভের মধ্যে গত সোমবার দেশটির পার্লামেন্ট একটি প্রস্তাব গ্রহণ করে, যাতে ‘এক পাকিস্তানের’ একনিষ্ঠ সমর্থকের ফাঁসিতে উদ্বেগ জানানো হয়।
এনিয়ে বাংলাদেশে ক্ষোভ-বিক্ষোভের মধ্যে মঙ্গলবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঢাকায় পাকিস্তান হাইকমিশনারকে ডেকে কড়া প্রতিবাদ জানায়।
এর পর সংসদের পক্ষ থেকেও নিন্দা প্রস্তাব গ্রহণের উদ্যোগ নেয়া হয় বলে প্রধান হুইপ শহীদ জানান।
আওয়ামী লীগের এই সংসদ সদস্য বুধবার জাতীয় সংসদ ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনের পর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “সংসদের পক্ষ থেকে নিন্দা জানানোর জন্য বিরোধীদলীয় চিফ হুইপকে ফোন করেছিলাম। কিন্তু কোনো রেসপন্স পাইনি।”
বিরোধীদলীয় প্রধান হুইপ জয়নুল আবদিন ফারুকের ফোনে যোগাযোগ করা হলেও তা বন্ধ পাওয়া যায়।

সংবাদ সম্মেলনে শহীদ বলেন, “বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে পাকিস্তানের পার্লামেন্ট যে প্রস্তাব গ্রহণ করেছে, তার জন্য জাতীয় সংসদের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এটি বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নগ্ন হস্তক্ষেপের শামিল।”
সংসদ কার্যকর নয় বলে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রতিবাদ জানানো হয় বলে জানান তিনি।
সংবাদ সম্মেলনে হুইপ আ স ম ফিরোজ বলেন, “৭১ এ পাকিস্তান গণহত্যা করে অপরাধ করেছে; এবার দ্বিতীয় অন্যায় করল। এটি ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ।”
পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদে এ বিষয়ে জাতীয় সংসদের পক্ষ থেকে কোনো বার্তা পাঠানো হবে কি না- জানতে চাইলে প্রধান হুইপ বলেন, স্পিকারের সঙ্গে আলোচনা করে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

শেয়ার