সাতক্ষীরা ছেড়ে পালানোর সময় জামায়াত শিবিরের ১৬ নেতাকর্মী আটক ॥ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য মিলেছে

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি॥ সাতক্ষীরায় যৌথ বাহিনীর অভিযানে জামায়াত শিবিরের বিভিন্ন পর্যায়ের ১৬ নেতাকর্মী আটক হয়েছে। রোববার সকালে কলারোয়ায় এসপি গোলডেন পরিবহণে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে কলারোয়ার আওয়ামী লীগের দুই নেতাকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে নৃসংমভাবে হত্যাস নাশকতার সুনির্দিষ্ট অভিযোগ রয়েছে। এদিকে গতকালও জামায়াত শিবির সড়ক কেটে ও গাছের গুড়ি ফেলে অবরোধ, বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ করে।
আটককৃতরা হলেন, তালা উপজেলার ক্ষেত্রপাড়া গ্রামের বিল্লাল খাঁর ছেলে সোহরাব হোসেন, মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে আনিছুর মোল্যা, কেরামত মোল্যার ছেলে হাবিবুর মোল্যা, আফসার মোল্যার ছেলে আমানুল্যাহ মোল্যা, আকবর মিস্ত্রির ছেলে গোলাম হোসেন, আব্দুর রহমানে সানার ছেলে আমান আলী, মোহর আলীর ছেলে মিজানুর রহমান, করিম মোল্যার ছেলে সোহরাব হোসেন, সাতক্ষীরা সদর উপজেলার আমতলা গ্রামের সাইদ আলীর ছেলে কবিরুল ইসলাম, জয়নগর গ্রামের নায়েব আলীর ছেলে রাশেদুল শেখ, কাদের গাজীর পুত্র মুস্তাজুল ইসলাম, মনিরুদ্দিন গাজীর ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন, মানিক নগর গ্রামের ইউসুফ আলীর ছেলে ইয়ার আলী, বাটরা গ্রামের সাখাওয়াত হোসেনের ছেলে হাবিবুর রহমান, কলারোয়া বসন্তপুর গ্রামের আইয়ুর আলীর ছেলে রবিউল ইসলাম ও আব্দুর রহিম গাজীর ছেলে মাহাবুব গাজী। সাতক্ষীরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরী জানান, যৌথ বাহিনীর সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার রাত সাড়ে ১১ টায় কলারোয়ায় এসপি গোল্ডেন লাইন পরিবহনে অভিযান চালিয়ে তাদের ১৬ আটক করে। তারা সাতক্ষীরা ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছিল। আটকের পর তাদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। এদিকে রোববারও জামায়াত শিবির শহরের অদূরে সাতক্ষীরা-যশোর সড়কের কদমতলা এলাকায় সড়কের উপর টায়ার জ্বালিয়ে, গাছের গুড়ি ফেলে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়। এ সময় তারা বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে। সাতক্ষীরা-কালিগঞ্জ সড়কের আলীপুর চেকপোষ্ট, দেবহাটার সেকেন্দ্রা, নলতা ও কালিগঞ্জে, সাতক্ষীরা-আশাশুনি সড়কের রামচন্দ্রপুর, সাতক্ষীরা-খুলনা সড়কের পাটকেলঘাটাসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে সড়ক অবরোধ করে তারা।

শেয়ার