যশোরে হরতাল প্রত্যাখান করে জেলা ছাত্রলীগের মিছিল॥ বোমা ফাটিয়ে জামায়াত শিবিরের সহিংসতা

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ রোববার হরতাল চালাকালে যশোরের শহরতলীতে নাশকতা চালিয়েছে জামায়াত শিবির। বেলা ১১টার দিকে তারা শহরতলীর হামিদপুর আলহেরা ডিগ্রি কলেজের সামনে বোমা ফাটিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে। এ ছাড়া জেলার বিভিন্ন স্থানে রাস্তার গাছ কাটাসহ বিক্ষিপ্তভাবে সহিংস ঘটনা ঘটিয়েছে তারা। হরতাল প্রত্যাখান করে শহরে মিছিল করে জেলা ছাত্রলীগ।
যুদ্ধাপরাধী কাদের মোল্লার ফাঁসি হওয়ায় রোববার সারাদেশে হরতাল ডাকে জামায়াত শিবির। এদিন যশোর শহরে তারা একটি ঝটিকা মিছিল বের করলেও প্রশাসনের নজরদারি থাকায় নাশকতা করতে পারেনি। তবে যশোর-নড়াইল মহাসড়কের হামিদপুর আলহেরা কলেজের সামনে তারা পিকেটিংয়ের নামে জনগণকে নাজেহাল করেছে। একপর্যায়ে সেখানে বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আতঙ্ক ছড়ায়। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
বেলা ১২টার দিকে শহরের গাড়িখানা রোডের জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে থেকে মিছিল বের করে ছাত্রলীগ। মিছিলটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একই স্থানে এসে শেষ হয়। এসময় বক্তব্য রাখেন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক যুবলীগ নেতা মাহমুদ হাসান বিপু, যুবলীগ নেতা এহসানুল হক লিটু, শহর আওয়ামী লীগ নেতা জাকির হোসেন রাজীব, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আরিফুল ইসলাম রিয়াদ, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বিপুল, সহ-সভাপতি সাইফুজ্জামান বাবু সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী তৌহিদুর রহমান জুয়েল, ক্রীড়া সম্পাদক মাসুদুর রহমান মিলন, অর্থ সম্পাদক রবিউল ইসলাম রবি, শিক্ষা ও পাঠচক্র সম্পাদক মেহেদি হাসান রনি, তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক রওশন ইকবাল শাহী, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক সজিবুর রহমান, সাহিত্য সম্পাদক সাগর রহমান, উপ গণযোগাযোগ সম্পাদক সবুজ বিপ্লব, সদস্য এসএম জাবেদ উদ্দিন, আলমগীর হোসেন, ইয়াসিন কাজল, সালসাবিল আহম্মেদ প্রমুখ। মিছিল থেকে যুদ্ধাপরাধীদের দোসর নব্য রাজাকারদের প্রতিহত করার ঘোষণা দেয়া হয়।

শেয়ার