রূপদিয়ায় রাস্তার গাছ কেটে জামায়াত শিবিরের সড়ক অবরোধ

tree
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরে ১৮ দলীয় জোটের বৃহষ্পতিবারের অবরোধে যশোর-খুলনা মহাসড়কের রূপদিয়ায় আবারো গাছ কেটে যানবাহন ও সাধারন মানুষের চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে বিএনপি-জামায়াতের কর্মীরা। কমপে আরো ২৫/৩০ টি গাছ কেটে তারা রাস্তার ওপর ফেলে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয়। এসব গাছের মধ্যে নীমভূত, রেন্ট্রি, কড়াই ও মেহগনি ছাড়াও মূল্যবান বেশ কিছু গাছ রয়েছে। এর আগে বুধবার একই এলাকায় শতাধিক গাছ কেটে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার এলাকা অবেরাধ করে রাখে জামায়াত-শিবির।
প্রত্যদর্শীরা জানায়, বৃহষ্পতিবার ভোরে জামায়াত-শিবিরের বিপুল সংখ্যাক নেতাকর্মী সদর উপজেলার রূপদিয়া এলাকায় রাস্তায় নেমে আসে। তারা রূপদিয়ার রব্বানী টেক্সটাইল মিলের সামনে রাস্তার পাশের ২০/২৫টি গাছ কেটে যশোর-খুলনা মহাসড়কে যানবাহন চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। সকাল থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত তারা ওই স্থানে গাছের গুড়ির পাশাপাশি টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে বিােভ করে। ফলে গুরুত্বপূর্ণ মহাসড়কটিতে ভারী যান তো দূরের কথা, ছোট খাট যানবাহনও চলতে করতে পারেনি। অবরুদ্ধ এলাকায় খন্ড খন্ড মিছিল-সমাবেশ করে ১৮ দলের নেতা কর্মীরা। পুলিশ আসার খবর পেয়ে অবরোধকারীরা পালিয়ে যায়। কোতোয়ালি থানার (ওসি) এমদাদুল হক শেখ জানান, বৃহষ্পতিবার সকাল থেকেই রূপদিয়া এলাকায় জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীর গাছ কেটে রাস্তায় ফেলে অবরোধ করে। দুপুরের দিকে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে অবরোধকারীরা পালিয়ে যায়। দুপুর ৩টার দিকে পুলিশ সদস্যরা গাছ সরানোর কাজ শুরু করে। তিনি আরো জানিয়েছেন, বুধবারও অবরোধকারীরা এই এলাকায় শতাধিক গাছ কেটেছিল। তবে ওই ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। কেউ মামলাও করেনি। এদিকে, বরাবরের মতো যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের চাঁচড়ায় অবস্থান নিয়ে বিােভ-সমাবেশ করে ১৮ দলীয় জোট নেতাকর্মীরা। এছাড়া যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের নতুনহাট, যশোর-মাগুরা মহাসড়কের কিসমত নওয়াপাড়া, যশোর-সাতীরা সড়কের মনিরামপুরের বেগারিতলায় অবরোধকারীরা রাস্তায় গাছের গুঁড়ি ও ইটপাটকেল ফেলে অবরোধ সৃষ্টি করে।

শেয়ার