খুলনার ৬টি আসনে জাপা প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার : দু’টিতে আ.লীগের একক প্রার্থী

খুলনা ব্যুরো॥ জাতীয় পার্টির (এ) প্রার্থীরা মনোনয়ন প্রত্যাহারের আবেদন করায় খুলনার কমপক্ষে দু’টি আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে চলেছেন। গতকাল বুধবার দুপুরে জেলা রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে খুলনার ৬টি আসনের মধ্যে ৫টি আসনের প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের আবেদন করেন। সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এমএম আরিফ পাশা জাতীয় পার্টি (এ) প্রার্থীদের প্রত্যাহারপত্র জমা নেন। এসময় জেলা নির্বাচন অফিসার হাবিবুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।
রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় সূত্র জানায়, প্রার্থীতা প্রত্যাহারের আবেদনকারীরা হলেন, খুলনা-২ (সদর ও সোনাডাঙ্গা) আব্দুল গফফার বিশ্বাস, খুলনা-৩ (খালিশপুর-দৌলতপুর-খানজাহান আলী) শফিকুল ইসলাম মধু, খুলনা-৪ (রূপসা-দিঘলিয়া-তেরখাদা) মল্লিক হাদিউজ্জামান, খুলনা-৫ (ডুমুরিয়া-ফুলতলা) জোহর আলী মোড়ল ও খুলনা-৬ (কয়রা-পাইকগাছা) এর মোস্তফা কামাল জাহাঙ্গীর। তবে খুলনা-১ আসনের জাতীয় পার্টির (এ) প্রার্থী এরশাদের প্রেস সেক্রেটারী সুনীল শুভ রায় বুধবার পর্যন্ত মনোনয়নপত্র জমা প্রত্যাহার করেননি।
খুলনা মহানগর জাতীয় পার্টির (এ) সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল গফফার বিশ্বাস জানান, দেশে নির্বাচনের কোন পরিবেশ নেই। অস্থিতিশীল অবস্থার মধ্য দিয়ে ১৬ কোটি মানুষ শ্বাসরুদ্ধকর পরিবেশে বসবাস করায় শান্তি বিনষ্ট হয়েছে। অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের সুযোগ না থাকায় দলীয় প্রধানের নির্দেশ অনুযায়ী জেলার সংসদ সদস্য প্রার্থীরা প্রত্যাহারপত্র জমা দিয়েছেন।
এদিকে জাতীয় পার্টির (এ) প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের মধ্য দিয়ে খুলনা-৪ ও ৬ আসনে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী হয়ে গেছে। এ দু’টি আসনে যথাক্রমে জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ এসএম মোস্তফা রশিদী সুজা ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট নূরুল হক বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হতে চলেছেন।

শেয়ার