সাতক্ষীরায় রাস্তা কেটে গাছের গুড়ি ফেলে জামায়াত শিবিরের অবরোধ॥ ভোমরায় ককটেল বিস্ফোরণ

satkhira ajhar ali
আব্দুল জলিল, সাতক্ষীরা॥ ১৮ দলের ফের ৭২ ঘন্টার অবরোধ কর্মসূচির প্রথমদিনে গতকাল সকাল থেকে সাতক্ষীরা জেলার বিভিন্ন স্থানে টায়ার জ্বালিয়ে, গাছের গুড়ি ফেলে জেলা শহরের সাথে উপজেলার সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয় জামায়াত শিবির। ভোমরা বন্দরে ৫টি ককটেল ফাটিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে দেয়। এ ঘটনায় বন্দরের আমাদানি-রপ্তানী কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়।
জানা যায়, সকালে শহরের অদূরে কদমতলায় সাতক্ষীরা-যশোর সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে ও গাছের গুড়ি ফেলে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয় জামায়াত-শিবির কর্মীরা। সেখানে বিক্ষোভ মিছিল করে তারা। সাতক্ষীরা-কালিগঞ্জ সড়কের আলীপুর চেকপোষ্ট এলাকায় সড়ক অবরোধ ও সমাবেশ করে অবরোধ সমর্থকরা। শহরের অদূরে রইচপুর এলাকায় রাস্তা কেটে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে। সাতক্ষীরা-আশাশুনি সড়কের রামচন্দ্রপুর, বুধহাটাসহ বিভিন্ন উপজেলায় সড়কের উপর গাছের গুড়ি ফেলে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছন্ন করে রাখে অবরোধ সমর্থকরা। সকালে ভোমরা স্থলবন্দরে ৫টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায় অবরোধ সমর্থকরা। এদিন সকালে পুলিশ রহমান আলী নামের এক জামায়াত কর্মীকে কলারোয়া বাজার থেকে আটক করে। নাশকতা এড়াতে সাতক্ষীরার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পুলিশ, বিজিবি ও র‌্যাব মোতায়েন করা হয়েছে।

শেয়ার