থাইল্যান্ডে একযোগে পদত্যাগ করছেন বিরোধী এমপিরা

thiland
বাংলানিউজ ॥
দুই সপ্তাহ ধরে সরকারবিরোধী বিােভের জের ধরে থাইল্যান্ডের সংসদ থেকে পদত্যাগ করছেন বিরোধী দল ডেমোক্রেটি পার্টির (ডিপি) সদস্যরা।

রোববার বিরোধী দলীয় সংসদ সদস্য শিরিচক সোফা টেলিভিশন ভাষণে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নেওয়ার ঘোষণা দিয়ে বলেন, থাকসিন শাসনের বিরুদ্ধে বিােভ করা জনতার সঙ্গে একাত্মতা পোষণ করে আমরা সংসদ থেকে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

উল্লেখ্য, থাইল্যান্ডের পার্লামেন্টের ৫০০ আসন বিশিষ্ট নিম্নকে ১৫৩ জন ডিপি দলীয় সদস্য রয়েছেন।

দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত সাবেক প্রধানমন্ত্রী থাকসিন সিনাওয়াত্রা তার বোন ইংলাক সিনাওয়াত্রার নেতৃত্বাধীন সরকার পরিচালনা করছেন বলে অভিযোগ তুলে পদত্যাগ দাবি করছেন বিরোধী দল সমর্থিত বিােভকারীরা।

সাবেক উপ-প্রধানমন্ত্রী ও বিােভকারী দলের নেতা সুথেপ থাউকসুবান সরকারের সংলাপ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন। একইসঙ্গে সোমবার সরকারের পদত্যাগে চূড়ান্ত বিােভে নামার আহ্বান জানিয়েছেন দেশবাসীকে।

তবে চলমান রাজনৈতিক অচলাবস্থা নিরসনে একটি প্রস্তাবনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ইংলাক।

তিনি জানিয়েছেন, বিরোধীরা মেনে নিলে সংকট নিরসনে সংসদ ভেঙে দিয়ে নতুন নির্বাচন সম্পন্ন করতে প্রস্তুত তিনি।

বিােভকারীরা চাইছে, ইংলাকের নেতৃত্বাধীন সরকারকে হটিয়ে একটি অনির্বাচিত ‘পিপলস কাউন্সিল’কে মতায় বসাতে।

দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত থাকসিন সিনাওয়াত্রাকে বাঁচাতে তার বোন ইংলাকের নেতৃত্বাধীন সরকার একটি আইন প্রণয়ন করেছে দাবি করে গত ২৪ নভেম্বর রাস্তায় নামে থাউকসুবানের নেতৃত্বাধীন বিােভকারীরা। ৫ ডিসেম্বর রাজা ভূমিবল আদুলায়েজের জন্মদিন উপলে বেশ কয়েকদিন পরিস্থিতি শান্ত থাকলেও সোমবার থেকে নতুন করে বিােভের ডাক দেওয়া হয়েছে দেশটিতে।

শেয়ার