ওমানে ৩৬ বাংলাদেশিকে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হচ্ছে

বাংলানিউজ ॥
ওমানের একটি নির্মাণ কারখানায় প্রায় দু’বছর ধরে নিয়মিত বেতন-ভাতা ছাড়া কর্মরত ৩৬ বাংলাদেশি নাগরিককে তিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন স্থানীয় শ্রম আদালত।
শ্রম আদালত ও বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তাদের উদ্ধৃতি দিয়ে ওমানের শীর্ষস্থানীয় ইংরেজি দৈনিক মাসকট ডেইলি এ খবর জানিয়েছে।
আদালতের এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে ওমানে নিযুক্ত দূতাবাস ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।
মাসকট ডেইলি জানায়, ২০১১ সালে কাজে যোগ দেওয়ার পর বেতন না দিয়েও দেশে ফিরতে না দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ওই কারখানায় আটকে রাখা হয় শ্রমিকদের। অবশ্য, শ্রমিকদের অভিযোগের পরিপ্রেেিত সংশ্লিষ্ট কর্তৃপরে সহযোগিতা ও আদালতের সিদ্ধান্তে এখন বাড়ি ফেরার জন্য অপো করছেন শ্রমিকরা। পাসপোর্ট ও বিমান পেলেই দেশের উদ্দেশ্যে উড়াল দেবেন তারা।
শ্রম আদালত সূত্র জানিয়েছে, দেশে ফেরার দিনই মাসিক মজুরি অনুযায়ী তাদের প্রত্যেককে এক হাজার ওমানি রিয়াল থেকে শুরু করে এক হাজার ৫০০ ওমানি রিয়াল (দুই লাখ দুই হাজার টাকা থেকে তিন লাখ তিন হাজার টাকা) পর্যন্ত পরিশোধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
মাসকটে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের জনৈক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, তাদের অনেকেরই পাসপোর্টের মেয়াদ নেই, তবে দূতাবাস এ ব্যাপারটি দেখছে। এছাড়া, তাদের অন্য সমস্যাগুলোও দ্রুত সমাধানের চেষ্টা চলছে।
যাদের সহযোগিতায় ওমানে নির্যাতিত বাংলাদেশি শ্রমিকরা ন্যায়বিচার পেয়েছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত এইচ ই শেখ সেকান্দর আলী।

শেয়ার