সবাইকে এক হয়ে কাজ করার আহ্বান থাই রাজার

Thaiking
সমাজের কথা ডেস্ক॥ থাইল্যান্ডের রাজা ভূমিবল আদুলায়াদেজ পারস্পরিক সমর্থনের ভিত্তিকে সব থাই নাগরিককে এক হয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন।
বৃহস্পতিবার রাজা তার ৮৬তম জন্মদিনে জনগণের উদ্দেশে ভাষণে এ আহ্বান জানান।
তিনি বলেন, ‘‘সবাই এক হয়ে কাজ করার কারণে দেশ অনেকদিন শান্ত ছিল৷ প্রত্যেক নাগরিকের উচিত এ বিষয়টি উপলব্ধি করা এবং দেশের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতার রক্ষায় যার যার দায়িত্ব পালন করা৷”
গত কয়েকদিন ধরে বিক্ষোভের পর সরকারবিরোধীরা রাজার জন্মদিন উপলক্ষে বিক্ষোভসহ সব কর্মসূচি সাময়িকভাবে স্থগিত রেখেছে। রাজার প্রতি সম্মান জানাতে আপাতত কোনো বিক্ষোভ কর্মসূচি দেয়নি তারা৷
হুয়া হিন এর রাজপ্রাসাদ থেকে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে ভাষণে রাজা বলেন, “দেশের নিরাপত্তা, স্থিতিশীলতা ও এর জনগণের জন্য আমাদের নিজেদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করতে হবে। থাইল্যান্ডের নাগরিকদের এটা বোঝা উচিত এবং সে অনুযায়ীই আচরণ করা উচিত।”
প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনওয়াত্রার পদত্যাগের দাবিতে গত ২৪ নভেম্বর থেকে থাইল্যান্ডে আন্দোলন শুরু করেছে সরকার বিরোধী বিক্ষোভকারীরা।
তাদের অভিযোগ ইংলাক সরকার তার ভাই সাবেক প্রধানমন্ত্রী থাকসিন সিনওয়াত্রার কথায় দেশ পরিচালনা করছেন। দুর্নীতির অভিযোগ ওঠার পর ২০০৬ সালে এক অভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত হন থাকসিন।
শুরুতে অহিংস আন্দোলন হলেও এ সপ্তাহান্তে এবং সোমবার বিক্ষোভ সহিংসতায় রূপ নিয়েছিল। ওই সময় বিক্ষোভকারীরা বিভিন্ন সরকারি ভবনে হামলা চালিয়ে সেগুলো দখল করে নেয়। তারা পুলিশ বেষ্টনী ভেঙে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় গণভবনে তান্ডব চালায়।
বিক্ষোভকারীদের রুখতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও জলকামান ব্যবহার করে। বিক্ষোভের সময় সরকার সমর্থক ও বিরোধীদের মধ্যে সংঘর্ষে শনিবার ও রোববার অন্তত চারজন নিহত হন।
মঙ্গলবার নিরাপত্তাবাহিনী বিক্ষোভকারীদের কাছ থেকে গণভবন দখলে নিলে পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত হয়। রাজার জন্মদিন শেষে ৬ ডিসেম্বর থেকে ফের নতুন করে আন্দোলনে নামার হুমকি দিয়ে রেখেছেন বিক্ষোভকারীদের নেতা সুদেপ থাগসুবান।

শেয়ার