ইয়েমেনে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে হামলায় নিহত ২০

yemen
বাংলানিউজ॥ ইয়েমেনের রাজধানী সানায় দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে ধারাবাহিক হামলায় অন্তত ২০জন নিহত ও ৩৭ জন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন নিরাপত্তা কর্মকর্তারা।
বৃহস্পতিবার বাব আল-ইয়ামান শহরে মন্ত্রণালয় ভবনের ফটকের কাছে এক আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী বিস্ফোরক দ্রব্য বোঝাই একটি গাড়ির বিস্ফোরণ ঘটায়। পরে নিরাপত্তা রক্ষীদের সঙ্গে বন্দুকধারীদের বন্দুকযুদ্ধ হয়।
কোনো গোষ্ঠীই এখন পর্যন্ত এ হামলার দায় স্বীকার করেনি। তবে মনে করা হচ্ছে, আরব দ্বীপে সক্রিয় আল-কায়েদার জঙ্গিরাই এ হামলা করেছে।
তবে, সরকারের এক মন্ত্রী বলেছেন, সাবেক প্রেসিডেন্ট আলি আব্দুল্লাহ সালেহ’র লোকজন এ হামলা করতে পারে।
কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এখন পরিস্থিতি নিরাপত্তা বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। বেশিরভাগ বন্দুকধারীই নিহত হয়েছেন। বন্দুকধারীদের জঙ্গি বলে সন্দেহ করা হচ্ছে।
মন্ত্রণালয় সূত্রের বরাত দিয়ে সংবাদ সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, মন্ত্রণালয়ে কর্মদিবস শুরুর পরপরই এক আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী গাড়ি নিয়ে মন্ত্রণালয়ের ফটক দিয়ে প্রবেশ করে।
কর্মকর্তারা জানান, এ ঘটনার পর আরেকটি গাড়ি থেকে মন্ত্রণালয় লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করা হয়।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, তারা গুলির শব্দ শুনেছেন। এর পরপরই ওই স্থানে অ্যাম্বুলেন্স পৌঁছে যায়।
ইয়েমেনের নিরাপত্তা বাহিনী আঞ্চলিক বিদ্রোহী বাহিনী ও আল-কায়েদার সঙ্গে প্রতিনিয়ত লড়াই করে যাচ্ছে। একইসঙ্গে সেনাবাহিনীর মধ্যে শৃঙ্খলা ও বিভাগ নিয়ন্ত্রণের জন্য লড়াই করতে হচ্ছে তাদের।
২০১১ সালে প্রেসিডেন্ট আলি আব্দুল্লাহ সালেহ’র ক্ষমতাচ্যুতির পর থেকেই দেশটি সংকটে রয়েছে।

শেয়ার