ঝিনাইদহে বিএনপির সাথে পুলিশের সংঘর্ষে গুলি টিয়ারসেল নিক্ষেপ॥ আহত ১৫

সাজ্জাদ আহমেদ, ঝিনাইদহ॥ ঝিনাইদহ শহরের আরাপপুর বাস-স্ট্যান্ডে বুধবার বেলা ১১টার দিকে বিএনপির সাথে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ প্রায় ১৫ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ও ১৪ রাউন্ড টিয়ারসেল নিপে করেছে। এ সময় সাংবাদিকসহ কমপে ১৫জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় জেলা শহরে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঝিনাইদহ সহকারী পুলিশ সুপার নজরুল ইসলাম জানান, ঝিনাইদহ শহরের আরাপপুর বাস-স্ট্যান্ড থেকে বিএনপি অবরোধের স্বপে একটি মিছিল বের করে। মিছিলটিতে নেতৃত্ব দেন জেলা বিএনপির সভাপতি মসিউর রহমান। মিছিলটি সৃজনী তেল পাম্পের কাছে পৌছালে পুলিশ ধাওয়া করে। এ সময় পুলিশ ও বিএনপির নেতা-কর্মীদের মধ্যে শুরু হয় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে কমপে ১৫ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ও ১৫ রাউন্ড টিয়ারসেল নিপে করে। সংঘর্ষ চলাকালে দায়িত্বপালনের সময় সাংবাদিক রাজিব হাসান ও শাহারিয়ার রহমান রকিসহ কমপে ১৫ জন কর্মী আহত হয়েছে। জেলা বিএনপির দপ্তর সম্পাদক প্রভাষক জাহাঙ্গীর হোসেন জানান,পুলিশের গ্রেফতার এড়াতে আহত বিএনপির নেতা কর্মিরা বিভিন্ন কিনিকে চিকিৎসা নিয়েছে। জেলা বিএনপির সভাপতি মসিউর রহমান সাংবাদিকদের জানান, আমাদের শান্তিপুর্ন মিছিলের উপর পুলিশ পিছন দিক থেকে হামলা চালিয়ে কমপে ১০/১৫জন নেতা-কর্মীকে আহত করেছে।

শেয়ার