গাছ ফেলে খুলনা-যশোর মহাসড়ক অবরোধ ॥ খুলনায় অবরোধে রেললাইনে নাশকতা : ট্রেন লাইনচ্যূত

Railwaypic
খুলনা ব্যুরো॥ খুলনায় অবরোধকারীরা রেল লাইনের জয়েন্ট প্লেট (ফিস প্লেট) খুলে ফেলায় ট্রেনের ইঞ্জিনসহ ৫টি বগি লাইনচ্যুত হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে দেড়টার দিকে ফুলতলা উপজেলার বেজেরডাঙ্গা রেল ষ্টেশনের ব্লক সেকশন ২৩/০ স্থানে এ ঘটনা ঘটে। নকশীকাঁথা এক্্রপ্রেস নামের এই ট্রেনটি গোয়ালন্দ থেকে ছেড়ে খুলনা স্টেশনে আসছিল। এ ঘটনার পর খুলনার সাথে সারাদেশের রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। তবে হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। অপরদিকে বুধবার অবরোধকারীরা গাছ কেটে খুলনা-যশোর মহাসড়ক এবং ফুলতলা-শাহপুর সড়কের দশটি পয়েন্টে অবরোধ সৃষ্টি করলে পুলিশ এক জনকে গ্রেফতার করেছে।
বেজেরডাঙ্গা রেলওয়ে ষ্টেশন মাষ্টার হারুন অর রশিদ জানান, গোয়ালন্দ থেকে ছেড়ে আসা খুলনাগামী ট্রেনটি ষ্টেশনের অদূরে যুগ্নীপাশা এলাকায় পৌছালে বিকট শব্দে লাইনচ্যুত হয়। অবরোধকারীরা সবার অগোচরে রেল লাইনের জয়েন্ট প্লেট খুলে ফেলার কারণে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে তার ধারণা। রেলের ইঞ্জিনসহ ৬টি বগি লাইনচ্যুত হয়েছে জানিয়ে তিনি জানান বগিগুলি উল্টে না যাওয়ায় যাত্রীদের কেউ হতাহত হয়নি। তবে গোটা দেশের সাথে খুলনা রেলওয়ের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। খবর পেয়ে রেলওয়ে খুলনার সিনিয়র সাব এ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার মোঃ শামসুর রহমান রিলিফ ট্রেন নিয়ে ভোর পৌনে সাতটায় ঘটনাস্থলে পৌছে উদ্ধার কাজ শুরু করেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত্ ইঞ্জিন ও অপর দু’টি বগি উদ্ধার করে বেজের ডাঙ্গা রেলষ্টেশনে রাখা হয়। এছাড়াও ঈশ্বরদী থেকে অপর একটি রিলিফ ট্রেন উদ্ধার তৎপরতায় অংশ নিতে ঘটনাস্থলে আসে। এ ঘটনায় রেলওয়ে যশোরের সহকারী প্রকৌশলী হাবিবুল ইসলাম বাদী হয়ে বুড়িয়ারডাঙ্গা গ্রামের মৃত আঃ খালেকের পুত্র আইয়ুব আলী (৪০) এর নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ১৫/২০ জনকে আসামি করে খুলনা জিআরপি থানায় মামলা করেছেন। মামলায় লক্ষাধিক টাকার ক্ষতির কথা উল্লেখ করা হয়েছে। খবর পেয়ে ডিভিশন রেলওয়ে ম্যানেজার পংকজ কুমার সাহা, ডিভিশনাল ট্রান্সপোর্ট অফিসার সুজিত কুমার বিশ্বাস, খুলনা জেলা পুলিশ সুপার গোলাম রউফ খান পিপিএন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্ল্যাহ, সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুল কাদের বেগ, ফুলতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ ইলিয়াজ ফকির, জিআরপি’র থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইকরাম আলী মোল্যা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এদিকে, একই রাতে অবরোধকারীরা দুটি বড় সিরিশ গাছ কেটে খুলনা-যশোর মহাসড়কের ফুলতলার রাড়ীপাড়া এবং ফুলতলা-শাহপুর সড়কের ২৮টি গাছ কেটে গাড়াখোলা, বেনেপুকুর ও ধোপাখোলা গ্রামের ১০টি পয়েন্টে অবরোধ করে। সহকারী পুলিশ সুপার (খ অঞ্চল) আব্দুল কাদের বেগ জানান, নাশকতার সাথে জড়িত সন্দেহে আইয়ুব আলী নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। অপরদিকে, রূপসা উপজেলায় রাস্তার পাশে রাখা দু’টি বাসে অগ্নিসংযোগ করেছে দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার রাত আটটার দিকে উপজেলার ইলাইপুর আনসার ক্যাম্পের কাছে এ ঘটনা ঘটে। প্রত্যদর্শীরা জানান, তিনটি মটরসাইকেল যোগে কয়েকজন যুবক ঘটনাস্থলে এসে রাস্তার পাশে রাখা বাস দু’টি ভাংচুর করার পর আগুন ধরিয়ে দেয়। তিগ্রস্থ বাস দু’টির মধ্যে একটির মালিক বাগেরহাটের গোলাম মোস্তফা এবং অন্যটির মালিকের নাম পরিচয় জানা যায়নি। একই সময় নগরীর মিনাক্ষী সিনেমা হলের সামনে ৩টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায় অবরোধকারীরা। এতে ৩ জন আহত হন। আহতদের নাম পরিচয় জানা যায়নি। এছাড়া গতকাল বুধবার সকালে সার্জিক্যাল কিনিক সংলগ্ন মজিদ স্মরণীতে শিবির কর্মীদের াসথে পুলিশের সংঘর্ষ হয়।

শেয়ার