৮০টি গ্রুপে তৈরি হচ্ছে পেট্রোল বোমা

petrol
বাংলানিউজ॥
রাজধানী ঢাকায় ৮০টি গ্রুপে তৈরি হচ্ছে পেট্রোল বোমা। এ গ্রুপের সদস্যরাই পেট্রোল বোমা তৈরি করে দেশের বিভিন্ন জেলায় সরবারহ করছেন।
সোমবার গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার ছানোয়ার হোসেন বাংলানিউজকে এসব তথ্য জানান।
তিনি বলেন, পুরো রাজধানীতে প্রায় ৭০/৮০টি গ্রুপ রয়েছে, যারা এগুলো তৈরি করছে। আমরা বিভিন্ন সময় ককটেল উদ্ধার করেছি। পাশাপাশি গ্রেফতার করা হয়েছে ককটেলের কারিগরদেরকেও। তাদের জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে জানা গেছে, যারা ককটেল বানান, তারাই এ পেট্রোল বোমা তৈরি করেন।
তিনি আরও বলেন, যারা এ পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করছেন, তারা প্রশিক্ষিত। প্রশিক্ষণ নেওয়ার পরেই তারা এ কাজে লিপ্ত হয়েছেন। ভয়ঙ্কর নাশকতা সৃষ্টিকারী এ গ্রুপকে আমরা ইতোমধ্যে কিছুটা সনাক্ত করতে পেরেছি। অল্প কিছুদিনের মধ্যে আমরা এ গ্রুপের সদস্যদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হবো।
গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা বাংলানিউজকে জানান, কিছুদিন আগেও হরতালে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা বেশি ঘটতো। কিন্তু বর্তমানে ককটেলের চেয়ে পেট্রোল বোমাকে হাতিয়ার হিসেবে বেছে নিয়েছেন দুর্বৃত্তরা।
এটি দূর থেকে যানবাহনে নিক্ষেপ করলে তাতে আগুন ধরে বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি হয়, জেনেই এগুলো ব্যবহার করছেন দুর্বৃত্তরা।
এদিকে একটি ককটেল তৈরি করতে যা খরচ হয় তার চেয়ে একটি পেট্রোল বোমা বানাতে খরচ কম হয়।
প্রসঙ্গত, সম্প্রতি রাজধানীসহ সারাদেশে হরতাল ও অবরোধে যানবাহনে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করছেন দুর্বৃত্তরা। এতে করে একদিকে যেমন বাসের ক্ষতি হচ্ছে, অন্যদিকে বাসের যাত্রীরা অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যাচ্ছেন কিংবা সারা জীবনের জন্য পঙ্গু হয়ে যাচ্ছেন। শুধুমাত্র ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ৯ জন। আরো অন্তত ৩০ জন রোগী রয়েছেন যারা অগ্নিদগ্ধ। বর্তমানে তারা হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন।

শেয়ার