প্রার্থীদের ঋণের তথ্য দিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশ

ncomession
বাংলানিউজ॥ দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঋণখেলাপিদের অংশগ্রহণ বাতিল করতে প্রার্থীদের ঋণের তথ্য দিতে বাংলাদেশ ব্যাংকে নির্দেশ দিয়েছে সরকার।
শনিবার দুপুরে ফ্যাক্স বার্তার মাধ্যমে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি কেন্দ্রীয় ব্যাংক পাঠানো হয়েছে।
রোববার সে মোতাবেক তফসিলি ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।
সূত্র জানিয়েছে, এর আগে খেলাপি ঋণ গ্রহীতাদের হালনাগাদ তালিকা প্রেরণের জন্য অর্থ মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।
চিঠিতে বলা হয়েছে, প্রার্থীদের একটি তালিকা নির্বাচন কমিশন অথবা সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছ থেকে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকগুলোকে বিশেষ দূতের মাধ্যমে সংগ্রহ করতে হবে। সংগ্রহ করা তালিকার সঙ্গে নিজের ব্যাংকের হালনাগাদ ঋণ খেলাপির তালিকা মিলিয়ে দেখবেন ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীরা।
এতে আরো বলা হয়, তালিকা প্রস্তুত করে নির্বাচন কমিশন, বাংলাদেশ ব্যাংকের ক্রেডিট ইনফরমেশন ব্যুরোসহ (সিআইবি) সংশ্লিষ্ট সকল শাখায় পাঠাবেন।
তবে এতে কোনো ভুল তথ্য পরিবেশন করলে তার দায় সংশ্লিষ্ট ব্যাংককে নিতে হবে এবং শাস্তির আওতায় আনা হবে বলেও হুঁশিয়ার করা হয়েছে।
বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ম. মাহফুজুর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, আমরা চিঠি পেয়েছি। সে মোতাবেক প্রস্তুত থাকতে তফসিলি ব্যাংকগুলোকেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
এদিকে আগামী ৫ জানুয়ারি জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ করা হবে। প্রার্থীদের মনোয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ২ ডিসেম্বর ও মনোয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের সময় ৫-৬ ডিসেম্বর।
মনোনয়নপত্র বাছাই সময় পর্যন্ত সকল ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে ছুটি বাতিল করতেও বলা হয়েছে।
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের দেওয়া তথ্য মতে, দেশে বর্তমানে ১ লাখ ৫২ হাজার ৭২৩ জন ঋণখেলাপি রয়েছেন। ৫০ হাজার টাকার ওপরে ঋণখেলাপির সংখ্যা বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য মতে ২০ লাখ।
নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে গত শনিবার দেশের সকল তফসিলি ব্যাংকের সকল শাখা কার্যক্রম পরিচালনা করেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের সিআইবিও খোলা রাখা হয়েছিলো।
গণপ্রতিনিধিত্ব অধ্যাদেশ ১৯৭২-এর অনুচ্ছেদ ১২ এর দফা(১) অনুযায়ী, ব্যাংক কোম্পানি আইনে দেনাদার, আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইনে দেনাদার, কোম্পানির পরিচালক হিসাবে, ফার্মের অংশীদার হিসাবে, ঋণ আদালত আইনে কোনো আর্থিক প্রতিষ্ঠানের পরিচালক হিসেবে কোনো ব্যাংক, বিশেষায়িত ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে গৃহীত ঋণের অর্থ বা ঋণের কোনো কিস্তি পরিশোধে খেলাপি হলে গণপ্রতিনিধিত্ব অধ্যাদেশ নির্বাচনের জন্য বা সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার অযোগ্য হবেন।

শেয়ার