ভূমিকম্পের অগ্রিম বার্তা দেবে স্মার্টফোনের অ্যাপ

smartphone
সমাজের কথা ডেস্ক ॥
ভূমিকম্পের অগ্রিম বার্তা দেওয়ার জন্য স্মার্টফোনের অ্যাপ তৈরি করা হচ্ছে বলে ওয়ার্ল্ড সায়েন্স ফোরামের বরাত দিয়ে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম। আগামী বছরের শুরুতে এ অ্যাপ উন্মুক্ত করা হবে।
মানুষ কিভাবে এ প্রযুক্তি ব্যবহার করবে ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক সে বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন ব্রাজিলের রিও ডি জেনেরিওতে অনুষ্ঠিত এক সম্মেলনে।
ইউসি বার্কলে ভূকম্পনবিদ্যা গবেষণাগারের পরিচালক প্রফেসর রিচার্ড অ্যালেনের নেতৃত্বে একটি দল এ অ্যাপ তৈরির কাজ করছে। এ অ্যাপের মাধ্যমে ভূমিকম্পের পূর্বে সতর্কতা হিসেবে অগ্রিম বার্তা দেওয়া যাবে।
এ অ্যাপ’র মাধ্যমে ভূমিকম্প স্থলে অবস্থানকারী কোনো ব্যক্তি ভূমিকম্পের কয়েক সেকেন্ড থেকে এক মিনিটের মধ্যে ভূমিকম্প সতর্কতা সংকেত পাবেন। এ অ্যাপ প্রাথমিকভাবে ভূমিকম্পের তীব্রতার চিত্রও তুলে ধরতে সক্ষম হবে।
এছাড়া ভূমিকম্পটির শুরু ও শেষ হওয়ার সময়ের পাশাপাশি ভূমিকম্পের তীব্রতা এবং স্থান সর্ম্পকেও অগ্রিম বার্তা প্রদানে এ অ্যাপ সক্ষম হবে বলে জানান গবেষকরা। ভূমিকম্পের সর্বোচ্চ পর্যায় ও এর প্রভাবে কোন এলাকার মানুষজন ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারেন সে বিষয়েও জানান দেবে অ্যাপটি।
এ বিষয়ে গবেষক অ্যালেন বলেন, ভূমিকম্পের অগ্রিম বার্তার জন্য আমাদের শুধুমাত্র একটি মোবাইল ফোনের প্রয়োজন। যার মাধ্যমে আমরা ভূমিকম্পের স্থান ও এ সর্ম্পকিত তথ্য পাবো।
তিনি আরও বলেন, ভূমিকম্প পূর্ব সর্তকতা সম্পন্ন এ অ্যাপ মানুষকে এর ভয়াবহতা থেকে রক্ষা করবে। বিশেষ করে যারা ভূমিকম্প এলাকায় থাকবেন, অগ্রিম সর্তকতার মাধ্যমে তারা দ্রুত নিরাপদ স্থানে সরে যেতে পারবেন।

শেয়ার