কলারোয়ায় দুই আ’লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা ॥ ৬৪ জনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা ॥ আটক ১১

সিরাজুল ইসলাম, সাতক্ষীরা ॥ সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার দেয়াড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মাহমুদুল হাসান বাবু জামায়াত-শিবিরের হামলায় নিহত হওয়ার ঘটনায় বুধবার গভীর রাতে কলারোয়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। নিহতের চাচাত ভাই আব্দার রহমান বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় ৪০ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ৪০/৪৫ জনকে আসামি করা হয়েছে। একই দিন বিকালে দেয়াড়া ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলামকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় হত্যা মামলা হয়েছে। নিহতের পিতা মজিবর রহমান বাদী হয়ে এই মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় ২৪ জনকে আসামী করা হয়েছে। এছাড়া ২০০/২৫০ জনকে অজ্ঞাত আসামী করা হয়েছে।
গত ২৬ নভেম্বর দেশব্যাপি ১৮ দলের ডাকা অবরোধ কর্মসূচি পালনের সময় সকালে কলারোয়া উপজেলার দেয়াড়া ইউনিয়নের যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহামুদুল হাসান বাবু ও বিকালে একই ইউনিয়নের সেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলামকে জামায়াত শিবিরের সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করে। কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ দারা খান জানান, মর্মান্তিক দুটি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় পৃথক দুটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন তাদের স্বজনরা। মামলার পরপরই বাবু হত্যার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে একজন ও রবিউল ইসলাম হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে ১০ জনকে আটক করা হয়েছে। এছাড়াও এজাহার নামীয় আসামীসহ ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্টদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

শেয়ার