মডেল না হয়ে গায়িকা হতে চেয়েছি : কর্ণিয়া

Kornia
বাংলানিউজ ॥
চেহারা দেখে অনেকেই ভেবে পান না। এই মেয়ে মডেলিং করে না কেনো। অনেকে আবার না জেনে প্রশ্নও করে বসেন, তুমি কি মডেলিং করো। এটা শোনার পর হা হা করে হাসতে থাকেন কর্ণিয়া। এরপর উত্তর একটাই- না আমি মডেলিং করি না, আর করতেও চাই না। আমি গানের মানুষ, গান করি।

২০১২ সালে পাওয়ার ভয়েস প্রতিযোগিতা দিয়ে পরিচিতি পান জাকিয়া সুলতানা কর্ণিয়া। সেই প্রতিযোগিতায় হন যৌথভাবে প্রথম রানার আপ দুইজনের একজন। বিজয়ী হবার পর তিনি টিভি লাইভ, স্টেজ শো ও প্লেব্যাক নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। এরই মধ্যে প্লেব্যাক করেছেন চারটি চলচ্চিত্রে।

এ বিষয়ে কর্ণিয়া বলেন, ‘আমি সর্বপ্রথম জাকির খানের পরিচালনায় রাঙা মন ছবিতে প্লেব্যাক করি। এরপর ‘দ্য স্টোরি অব সামারা’, ‘স্বপ্ন ছোঁয়া’ এবং সবশেষ গত ২৬ নভেম্বর মারুফ আহমেদ রিজভীর পরিচালনায় ‘বউ বানাবো তোকে’ ছবিতে একটি আইটেম গানে দ্বৈত কণ্ঠ দিলাম। আমার সাথে ছিলেন শিল্পী রুপম।’

এছাড়া আসছে ৩০ নভেম্বর কর্ণিয়ার একক সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হবে শাহবাগের জাতীয় জাদুঘরে। আমরা সূর্যমুখী সংগঠন থেকে আয়োজিত এই একক গানের অনুষ্ঠানে প্রথমবার টানা ১৫-২০টি গান করবেন তিনি। সবমিলিয়ে দারুণ সুসময় যাচ্ছে তার।

তবে প্রায়ই মন খারাপ থাকে এ শিল্পীর। কারণ ২০০০ সালে বাবা আবু বকরকে হারান তিনি। বাবা বাংলাদেশ বিমানবাহিনীতে কর্মরত অফিসার ছিলেন। তবে তার হাসিমুখ দেখে অনেকেই তার ভেতরের কান্না বুঝতে পারেন না।

বাবাকে হারালেও মা সেলিনা আখতার ছোটবেলা থেকে কর্ণিয়াকে গান শেখানো থেকে শুরু করে পড়াশুনা পর্যন্ত করিয়েছেন। ঢাকায় ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি থেকে বিবিএ সম্পন্ন করেছেন কর্ণিয়া।

কর্ণিয়া এ বিষয়ে বলেন, ‘মা আমার কাছে সবকিছু। আমার জীবনের সব হাসি-খুশির জন্য মার অবদান সবচেয়ে বেশি।’

মাগুরার নানাবাড়িতে জন্ম নেয়া কর্ণিয়ার গানের শুরু মায়ের হাত ধরে। নিজে গাইতেন। আর একদিন নিজের মেয়েও এদেশের নামী শিল্পী হবেন। এমনই স্বপ্ন ছিল মায়ের। সে স্বপ্ন পূরণের জন্যই ওস্তাদ শিহাব টিটোকে দিয়ে শুরু গান শেখা। সেখান থেকে গানের দ্বিতীয় প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা ছায়ানটে। নজরুল সঙ্গীত বিভাগে গান শিখেছেন বেশ কয়েক বছর ধরে।

তবে মায়ের পাশাপাশি কর্ণিয়াও পরিশ্রম করেছেন। গান শেখার পাশাপাশি বিভিন্ন স্টেজ শোতে গান করেছেন এবং পাশাপাশি বিভিন্ন বয়সী বাচ্চাদের গানও শিখিয়েছেন ৪ থেকে ৫ বছর। এভাবেই একদিন পাওয়ার ভয়েজে কোনো প্রস্তুতি ছাড়াই অডিশন দিলেন। সেখানে টিকেও গেলেন।

এরপর আর তাকে পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। গান করার পাশাপাশি ভালো তবলাও বাজাতে পারেন কর্ণিয়া।

সবশেষে জানতে চাইলাম নিজের একক অ্যালবাম প্রসঙ্গে। কর্ণিয়া বললেন, ‘আমি স্টেজ শো বা টিভি লাইভে বাংলা গানের পাশাপাশি ইংরেজি গানও করে থাকি। তবে এবার একটু অন্য চিন্তা করছি। সবসময় তো অন্যদের গান করে আসছি। এবার নিজের একটি মৌলিক গান করব এবং এর মিউজিক ভিডিও নির্মাণ করার পরিকল্পনা করছি। আর পাওয়ার ভয়েজের সাথে আমাদের চুক্তি শেষ হয়নি এখনও। তাদের অ্যালবামেও কাজ করব।’

মা ও ছোট বোন অমিয়াকে নিয়ে বর্তমানে মহাখালীতে থাকেন তিনি। গানের পাশাপাশি বেশকিছু বিজ্ঞাপনের মডেল হবারও প্রস্তাব পেয়েছেন এ কণ্ঠশিল্পী। কিন্তু কর্ণিয়ার একটাই কথা। মডেল না ভালো শিল্পী হতে চাই।

শেয়ার