এফএমডি ও পিপিআর ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে নিশ্চুপ প্রাণিসম্পদ বিভাগ

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি॥ বাগেরহাটের শরণখোলায় এফএমডি ও পিপিআর ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ব্যাপক হারে গবাদি পশু মারা যাচ্ছে। গত এক মাসে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় সহ¯্রাধিক গরু, ছাগল ও ভেড়ার মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এ ভাইরাস এলাকায় মহামারী আকার ধারণ করলেও কার্যকর কোনো কোন পদক্ষেপ নেই প্রাণী সম্পদ বিভাগের। এই রোগ প্রতিরোধে প্রাণী সম্পদ বিভাগ থেকে একেকটি ভ্যাকসিন ৪০০-৫০০ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন ক্ষতিগ্রস্তরা। তবে এ অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন প্রাণিসম্পদ বিভাগের কর্মকর্তারাু।
সরেজমিনে বেশ কয়েকটি গ্রামে গিয়ে ক্ষত্রিগস্তদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর পশুর খাওয়া-দাওয়া কন্ধ হয়ে যাচ্ছে। পাতলা পায়খার পাশাপাশি নাখ-মুখ দিয়ে সর্দি ও লালা ঝরছে। সেই সাথে পশুর গলাও ফুলছে। এসব উপসর্গ দেখা দেয়ার দু-এক দিনের মধ্যেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছে পশু। এ রোগের কারণে গর্ভবতী পশুর পেট থেকে বাচ্চা পড়ে যাচ্ছে বলেও জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্তরা। রায়েন্দা ইউনিয়নের পশ্চিম কদমতলা গ্রামের রকিম মোল্লা জানিয়েছেন, গত এক মাসের মধ্যে তার ৬টি গরু মারা গেছে। পশ্চিম খাদা গ্রামের শাহজাহান আকনের মারা গেছে ৩টি গরু। এছাড়া মালিয়া রাজাপুর গ্রামের হেমায়েত হাওলাদারের ২টি, ইউসুফ হাওলাদারের ১টি , রুহুল হাওলাদারের ১টি জাকির হাওলাদারের ১টি গরুসহ একই গ্রাম থেকে কমপক্ষে ১৫ টি গরু ও ছাগলের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন গ্রামবাসি। খোন্তাকাটা ইউনিয়নের রাজৈর গ্রামের রুহুল আমীন মুন্সীর ১টি, আছাদ হাওলাদারের ১টি, হাসান মুরাদ বাবুর ২টি ছাগল, ছালাম হাওলাদারের ৩টি ছাগল, আলামীনের ২টি ছাগল, সোহাগ গাজীর একটি গরু এবং মঠেরপাড় গ্রামের বাদল হাওলাদারের ২টি গরু, সাউথখালী ইউনিয়নের বকুলতলা গ্রামের জামাল চাপরাসীর ১টি ছাগল, আলতাফ গাজীর ১টি ছাগল, সেলিম খানের ১টি ভেড়া, সোনাতলা গ্রামের গণি দফাদারের ২টি গরু, ধানসাগর ইউনিয়নের নলবুনিয়া গ্রামের আ. হক ফকিরের ১টি গরু, আনোয়ার ফকিরের ২টি ছাগলসহ অসংখ্য পশু মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। ক্ষতিগ্রস্তরা অভিযোগ করেছেন, প্রাণিসম্পদ অফিসে গিয়ে অনেক সময় ডাক্তার পাওয়া যায় না। তারা এলাকায় গিয়ে কাউকে পরামর্শও দেননা। একেকটি ভ্যাকসিন ৪০০ থেকে ৫০০ টাকায় অফিস থেকে কিনতে হচ্ছে।। অনেক সময় এই ভ্যাকসিন পাওয়াও যাচ্ছে না।
উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মো. বখতিয়ার হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বেশ কিছুদিন ধরে গবাদি পশু ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছে বলে শোনা যাচ্ছে। তিনি জানান, এফএমডি ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছে গরু আর পিপিআর ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছে ছাগল ও ভেড়া। এফএমডি ভাইরাসের টিকার সরকারি দাম ১৯০ টাকা এবং পিপিআর ভাইরাসের টিকা ৫০ টাকা। বাড়তি টাকা নেয়া হচ্ছে না। জনবল সংকটের কারনে সব এলাকায় এখনো যাওয়া সম্ভব হয়নি বলে তিনি দাবি করেন।

শেয়ার