যশোরে মামলার বাদীকে অপহরণের পর মুক্তিপণ দাবি॥ থানায় মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরে আদালতে আসার পথে মামলার বাদীকে অপহরণের পর মুক্তিপণের দাবি করার অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। শুক্রবার রাতে চৌগাছা উপজেলার নিয়ামতপুর গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে তৌহিদুজ্জামার সুইট কোতোয়ালি থানায় এ মামলাটি করেন। মামলায় দুই জনের নামসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৬/৭ জনকে আসামি করা হয়। আসামিরা হলো, চৌগাছা উপজেলার নারায়নপুর গ্রামের শাহাজান বিশ্বাসের ছেলে ফয়েজ বিশ্বাস ও বকশিপুর গ্রামের রওশন শেখের ছেলে মহিদুল ইসলাম বজলু।
পুলিশ জানায়, চৌগাছার নিয়ামতপুর গ্রামের তৌহিদুজ্জামান সুইটের সাথে আসামিদের পূর্ব বিরোধ ছিল। গত ১৯ অক্টোবর বেলা ১১ টার দিকে সুইট একটি মামলার হাজিরা দেয়ার জন্য যশোর আদালতে আসছিলেন। আসার পথে শহরের মোমিন গার্লস স্কুলের সামনে পৌছানো মাত্রই আসামিরা তাকে অপহরণ করে পালবাড়ি ঘোষপাড়া নদীর পাড়ে নিয়ে যায়। এ সময় তার কাছে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে দুর্বৃত্তরা। এক পর্যায়ে সুইটের মোবাইল ফোন দিয়ে তার বাড়িতে ফোন করে মুক্তিপণের টাকা চাওয়া হয়। টাকা দিতে অস্বীকার করায় তাকে মারপিট করা হয়। পরে সুইটের আত্মীয় স্বজনেরা পুলিশের মাধ্যমে তাকে উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে থানায় মামলা হয়েছে।

শেয়ার