প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা হলেন আনোয়ার হোসেন মঞ্জু

monju
বাংলানিউজ ॥
নির্বাচনকালীন সরকারে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন জাতীয় পার্টির (জেপি) সভাপতি আনোয়ার হোসেন মঞ্জু। রোববার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করেছে। মন্ত্রীর পদমর্যাদায় তাকে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্ম-সচিব (বিধি ও সেবা অধিশাখা) আব্দুল ওয়াদুদ। এ নিয়ে বর্তমান ছোট পরিসরের উপদেষ্টার সংখ্যা দাঁড়ালো ১১ জনে।
এর আগে সোমবার বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির কাছে ছয় মন্ত্রী ও দুই প্রতিমন্ত্রীর শপথ নেওয়ার দিন উপদেষ্টা হিসেবে শপথ নেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন বাবলু।
মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার কথা থাকলেও সংসদ সদস্য না হওয়ায় তিনি উপদেষ্টা হিসেবে স্থান পান। গত বৃহস্পতিবার মন্ত্রিসভা পুর্নগঠনের সময় মহাজোট সরকারের আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ এবং শিল্পমন্ত্রী দিলীপ বড়ুয়াকে উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়। দু’জনই টেকনোক্রেট হিসেবে মহাজোট সরকারের মন্ত্রী হিসেবে স্থান পান। আগেই প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টার সংখ্যা ছিল সাতজন। এরা হলেন- এইচ টি ইমাম, মসিউর রহমান, সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী, আলাউদ্দিন আহমেদ। তাদের ২০০৯ সালের ৭ জানুয়ারি নিয়োগ দেওয়া হয়। ২০০৯ সালের ১৪ জানুয়ারি তৌফিক-ই-এলাহী এবং একই বছরের ৯ জুলাই গওহর রিজভী উপদেষ্টা পদে বহাল আছেন। উপদেষ্টা হিসেবে তারেক আহমেদ সিদ্দিকীও বহাল রয়েছেন।
রোববার একাদশতম উপদেষ্টা হিসেবে মঞ্জু নিয়োগ পেলেও আগের উপদেষ্টাদের বিষয়ে কোনো নির্দেশনা দেওয়া হয়নি, ফলে উপদেষ্টার সংখ্যা দাঁড়াল ১১ জন।
গত ১১ নভেম্বর ১৪ দলের নেতাদের সঙ্গে এক বৈঠকের পর মঞ্জু সাংবাদিকদের বলেছিলেন, বিএনপি নির্বাচনে না এলেও তার দল ভোটে অংশ নেবে।
সংবিধান অনুযায়ী আগামী ২৪ জানুয়ারির মধ্যে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের কথা রয়েছে। উপদেষ্টাদের বিষয়ে নতুন আর কোনো নির্দেশনা না আসলেও নির্বাচনকালীন সময় পর্যন্ত তারা প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা হিসেবে থাকবেন।

শেয়ার