শেষ হতে পারে নির্ধারিত সময়ের ১ বছর আগেই ॥ চৌগাছার মানুষের স্বপ্নের কপোতাক্ষ সেতুর নির্মাণ কাজ এগিয়ে চলেছে

chowgasa
ইয়াকুব আলী, চৌগাছা থেকে॥ যশোরের চৌগাছার মানুষের স্বপ্নের কপোতা নদের উপর সেতু নির্মাণ কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলেছে। চলতি নভেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে এই সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। সেতুর নির্মাণ কাজ ২০১৫ সালের ৪ সেপ্টেম্বরের মধ্যে শেষ হবার কথা থাকলেও ঠিকাদাররা বলছেন নিধারিত সময়ের ১ বছর আগেই শেষ হতে পারে। ইতিমধ্যে সেতুর পূর্ব প্রান্তের ৮টি খুঁটি স্থাপনের কাজ শেষ হয়েছে। প্রয়োজনীয় বালি, খোয়া, সিমেন্ট নদের দুই প্রান্তেই জড়ো করা হয়েছে। সেতু নির্মাণের ফলে একমাত্র যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে এ এলাকার ব্যবসা-বানিজ্য,যাতায়াত ব্যবস্থা একাধাপ এগিয়ে যাবে। একই সাথে এ উপজেলায় সাবেক আইসিটি মন্ত্রী মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ ও স্থানীয় আওয়ামীলীগের রাজনৈতিক ইমেজ বৃদ্ধি পেয়েছে বলে সচেতন মহল অভিমত প্রকাশ করেছেন।
জানা যায়,১১ অক্টোবর বর্তমান মহাজোট সরকারের সাবেক তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রী ও আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ কপোতা নদের উপরের সেতু নির্মাণের ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন করেন। এ সেতু নির্মাণের জন্য সড়ক ও জনপথ বিভাগ ৫কোটি ৬০ ল টাকা বরাদ্দ দিয়েছে। সেতুটি নির্মাণের মাধ্যমে এ অঞ্চলের মানুষের দীর্ঘদিনের দাবী বা স্বপ্ন পূরন হবে। ইতিমধ্যে চৌগাছার বিশিষ্ট শিল্পপতি হাসানুজ্জামান রাহিনের এ সেতুর ওপারে নজর পড়েছে। তিনি শিল্প কলকারখানা স্থাপনের জন্য জমি ক্রয়ের কাজে হাত দিয়েছেন। ফলে এ এলাকায় হাজার হাজার মানুষের কর্মসংস্থানসহ চেহারা বদলে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে। বিগত দিনে এখান থেকে যে সকল জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তাদের সকলে এই সেতু নির্মাণের প্রতিশ্র“তি দিয়ে ভোটারদের কাছ থেকে ভোট নেন। কিন্তু কেউ তাদের নির্বাচনী প্রতিশ্রতি পূরন করতে পারেনি। অবশেষে মহাজোট সরকারের সাবেক তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ তার ওয়াদা রা করেছেন। তার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এই সেতুর নির্মানসহ উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় বিদ্যুত,সড়ক,রাস্তা সংস্কার ও নির্মান, খাল, বিল,বাওড় খনন,শিা প্রতিষ্ঠানের নতুন ভবন নির্মাণ ও সংস্কারসহ নানামূখী ব্যাপক উন্নয়ন মূলক কাজ করেছেন। তিনি মন্ত্রী হয়ে চৌগাছায় আসার পর এখানকার নাগরিক সমাজ উপজেলা পরিষদ বৈশাখী মঞ্চে অনাড়ম্বর পরিবেশে তাকে ফুল দিয়ে উষ্ণ অভিনন্দন জানিয়েছিল। শুধু তিনিই নন এ উপজেলার আওয়ামীলীগের ইমেজ ফিরে আসতে শুরু করেছে বলে সচেতন মহল অভিমত ব্যক্ত করেছেন।

শেয়ার