আইন-স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় প্রধানমন্ত্রীর

Hasina

বাংলানিউজ ॥
নির্বাচনকালীন সর্বদলীয় মন্ত্রিসভা পুনর্গঠিত হলেও স্বরাষ্ট্র এবং আইন মন্ত্রণালয় রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনে। আর এই দুই মন্ত্রণালয়ে দু’জন প্রতিমন্ত্রী স্বপদে বহাল রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করে মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীদের দফতর বণ্টন করে।

মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীদের মধ্যে ২১ জন মন্ত্রী এবং সাত জন প্রতিমন্ত্রীর মধ্যে দফতর বণ্টন-পুনর্বণ্টন করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়, প্রতিরা মন্ত্রণালয় ও সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের দায়িত্বে থাকবেন।

আগেও এসব মন্ত্রণালয় ও বিভাগ প্রধানমন্ত্রীর অধীনে ছিল।

আগের টেকনোক্রেট মন্ত্রী আইন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে থাকা ব্যারিস্টার শফিক আহমেদকে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা করা হলেও প্রতিমন্ত্রী কামরুল ইসলামের দফতর বদল হয়নি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীরকে সরিয়ে দেওয়া হলেও সেখানে নতুন কাউকে নিয়োগ দেয়নি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এই মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক স্বপদে রয়েছেন।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, যে সকল মন্ত্রণালয় বা বিভাগ কোনো মন্ত্রী বা প্রতিমন্ত্রীর অধীনে ন্যস্ত করা হয়নি, সেগুলো পুনরাদেশ না দেওয়া পযন্ত সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকবে।

বিদুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীকে সরিয়ে দেওয়া হলেও আর কাউকে দেওয়া হয়নি এ দফতরের দায়িত্ব, ফলে তা প্রধানমন্ত্রীর অধীনেই থাকলো।

দেশের রাজনৈতিক অনিশ্চয়তা ও রাজনৈতিক সহিংসতার মধ্যে তার এ দফতর গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে।

শেয়ার