দাকোপে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে কাবিখার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

দাকোপ (খুলনা) প্রতিনিধি॥ দাকোপ উপজেলা সদর চালনা পৌরসভার বড় খলিসা এলাকার পাগল চাঁদ ঠাকুরের মন্দিরের নামে বরাদ্দ কাবিখার ৩০হাজার টাকা প্রকল্প চেয়ারম্যান আত্মসাত করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এলাকাবাসী প্রতিকার চেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর অভিযোগ করেছে।
এলাকাবাসীর লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায় ২০১০-১১ অর্থ বছরে গ্রামীণ অবকাঠামো সংস্কার (কাবিখা) ১ম পর্যায়ের কাজে সংসদ সদস্য কর্র্তৃক চালনা পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের বড় খলিসা এলাকার পাগল চাঁদ ঠাকুরের মন্দিরের নামে ৩নং প্রকল্পে ৩০ হাজার টাকা বরাদ্দ হয়। টাকা তোলার জন্য একই এলাকার জনৈক চৈতন্য বিশ্বাস কমিটির চেয়ারম্যান সেজে টাকা উত্তোলন করে। পরবর্তীতে কমিটির অন্যান্য সদস্যদের না জানিয়ে মন্দিরের কাজ না করে সমুদয় টাকা আত্মসাত করেছে বলে প্রতিকারের জন্য এলাকাবাসী গত ১২ নভেম্বর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর ৬০ জনের গণস্বাক্ষরিত লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। আর এতে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সুপারিশ করেছেন সংশ্লিষ্ট কাউন্সিলর শুভংকর রায়। অনুলিপি প্রেরণ করা হয়েছে সংসদ সদস্যসহ ৫টি দপ্তরে। এ ঘটনার সত্যতা যাচাই এর জন্য এ প্রতিবেদক সরেজমিনে গেলে দেখা যায় মন্দিরের নাম মাত্র কাজ হয়েছে। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত প্রকল্পের চেয়ারম্যান চৈতন্য বিশ্বাস জানান আমি মন্দির নির্মাণের জন্য প্রায় ২৪ হাজার টাকার ইট, বালু কিনে রেখেছি। অতি দ্রুত কাজ শুরু করব।

শেয়ার