ইরানের পরমাণু কর্মসূচি বিষয়ে সমঝোতা হচ্ছে না!

iran
বাংলানিউজ ॥
সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় গত বুধবার থেকে শুরু হয়ে শুক্রবার তিন দিনে গড়িয়েছে বিশ্বশক্তি ও ইরানের মধ্যকার তেহরানের পরমাণু কর্মসূচি বিষয়ক আলোচনা। আগের যে কোনো সময়ের চেয়ে সমঝোতায় পৌঁছানোর ক্ষেত্রে অগ্রগতি হলেও ইরান অভিযোগ করছে, ছোট-খাট মতবিরোধের কারণে এ বিষয়ে আর ‘অগ্রগতি হচ্ছে না’!

গত জুনে সংস্কারপন্থি হাসান রৌহানি ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর বুধবার তৃতীয় দফায় তেহরানের সঙ্গে বিশ্বশক্তিগুলোর (যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, রাশিয়া, চীন ও জার্মানি) আলোচনা শুরু হয়।

সাম্প্রতিককালের আলোচনায় ব্যাপক অগ্রগতি হওয়ায় ধারণা করা হচ্ছিল তেহরানের পরমাণু কর্মসূচি বিষয়ে ইরানের সঙ্গে পশ্চিমা শক্তিগুলোর কয়েক দশকব্যাপী অচলাবস্থার নিরসন হতে চলেছে।

তবে, বুধবার থেকে শুরু হওয়া তৃতীয় দফা আলোচনায় উল্লেখযোগ্য কোনো অগ্রগতি না হওয়ায় এবং ইরানের পক্ষ থেকে অসন্তোষ প্রকাশ করায় ধারণা করা হচ্ছে এ যাত্রায় আর পশ্চিমাদের সঙ্গে তেহরানের সমঝোতা হচ্ছে না।

যদি এই আলোচনা কোনো ধরনের সমঝোতায় পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়, তার অর্থ হবে ইরান তাদের পরমাণু সমৃদ্ধকরণ কাজ চালিয়ে যাবে। ওয়াশিংটনসহ পশ্চিমারা তেহরানের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা আরও কঠোরতর করবে এবং সামরিক হামলার সিদ্ধান্ত বিবেচনা করবে ইসরায়েল।

‘পাওয়ার সিক্স’ চায় ইরান তাদের পরমাণূ কর্মসূচি থেকে ৬ মাসের জন্য সরে আসুক এবং তাদের দেওয়া শর্ত অনুসারে কাজ করুক। কিন্তু ইরান চাইছে তাদের ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ চলুক, তবে সেটি পরমাণু অস্ত্র তৈরির কাজে ব্যবহৃত হবে না।

এক্ষেত্রে তেহরানকে পশ্চিমারা বিশ্বাস করতে পারছে না বলেই ফের অচলাবস্থার সৃষ্টি হলো বলে মনে করা হচ্ছে।

শেয়ার