শার্শায় স্ত্রীর দায়ের করা মামলার আসামি হলেন বিদেশে থাকা স্বামী

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরের শার্শায় রানা নামে এক যুবক এক বছর ধরে বিদেশ থাকলেও তার স্ত্রীর দায়ের করা মামলার আসামি হয়েছেন। স্থানীয়দের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে তার নামে এই ষড়যন্ত্রমূলক মামলা করা হয়েছে বলে পরিবারের লোকজন অভিযোগ করেছেন।
শার্শা উপজেলার টেংরালি গ্রামের আমেনা খাতুন জানান, তার ছেলে রানা (২৫) সদর উপজেলার নূরপুর গ্রামের আলাউদ্দিনের ছেলে ময়না আক্তারকে বিয়ে করেন। বিয়ের কয়েক মাস পর তিনি শ্রমিক হিসেবে বিদেশ যান। এক বছর যাবত তিনি মালয়েশিয়ায় অবস্থান করছেন। কিন্তু তার ছেলেকে ফাঁসাতে ২০১৩ সালের পহেলা সেপ্টেম্বর তার পুত্রবধূ ময়না আক্তার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা করেন। এতে ময়না বেগম তার স্বামীর বিরুদ্ধে মারপিট করে গর্ভের সন্তান নষ্ট করার অভিযোগ করেছেন। এদিকে শার্শার ডিহি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান স্বাক্ষরিত প্রত্যয়নপত্রে দেখা যায় রানা এক বছর ধরে মালয়েশিয়ায় অবস্থান করছেন। অথচ দু’মাস আগে রানার নামে মারপিট করে স্ত্রীর গর্ভের সন্তান নষ্ট করার অভিযোগ আনা হয়েছে। সূত্র মতে, স্থানীয় একটি কুচক্রি মহলের ইন্ধনে বিদেশে অবস্থানরত রানার নামে মামলা করা হয়েছে।

শেয়ার