বিএনপি এলে এক ডজন মন্ত্রী: ওবায়দুল কাদের

obidul
সমাজের কথা ডেস্ক॥ বিরোধী দলকে আবারো সর্বদলীয় মন্ত্রিসভায় যোগ দেয়ার আহ্বান জানিয়ে ক্ষমতাসীন দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রয়োজনে তাদের ১২টি মন্ত্রণালয়ও দেয়া যেতে পারে।
মঙ্গলবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে যোগাযোগ মন্ত্রী কাদের বলেন, “জাতীয় পার্টিকে ৬ থেকে ৭টি দেয়া হয়েছে, বিএনপিকে দিতে সমস্যা কি? প্রয়োজনে ১০ থেকে ১২টি দেব।”
গত সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রীর হাতে মন্ত্রিপরিষদের সদস্যদের পদত্যাগপত্র তুলে দেয়ার মধ্য দিয়ে এই সর্বদলীয় মন্ত্রিসভা গঠনের প্রক্রিয়া শুরু হয়। আগামী জানুয়ারিতে নির্বাচনের সময় এ সরকারই দায়িত্বে থাকবে।
সোমবার বঙ্গভবনে এই মন্ত্রিসভার নতুন আট সদস্যকে শপথ পড়ান রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, যাদের মধ্যে পাঁচজনই জাতীয় পার্টির নেতা। এছাড়া জাতীয় পার্টির আরেকজনকে মন্ত্রী পদমর্যাদায় প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা করা হয়েছে।
কাদের বলেন, “এখনো আশা করি, বিরোধী দল আসবে। বিরোধী দল এলে ষোল কলা পূর্ণ হতো।”
সর্বদলীয় সরকার নিয়ে এই আওয়ামী লীগ নেতার দাবি, “যা হয়েছে দেশের ভালর জন্যই করা হয়েছে, বিরোধী দল আসলে আরো সুন্দর হতো।”
এ বিষয়ে বিরোধী দলের সঙ্গে এখনো নেপথ্যে যোগাযোগ চলছে বলেও উল্লেখ করেন কাদের। সোমবারও তিনি একই ধরনের ইংগিত দিয়েছিলেন।
অবশ্য বিএনপি এই সর্বদলীয় সরকারকে ‘তামাশা’ আখ্যায়িত করে যোগ না দেয়ার কথা বলে আসছে।
সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদের সঙ্গে বিরোধী দলীয় নেতার বৈঠক হওয়ারও কথা রয়েছে, যেখানে খালেদা জিয়া সংকট নিরসনে রাষ্ট্রপতির হস্তক্ষেপ চাইবেন বলে ইংগিত দিয়েছেন বিএনপি নেতারা।
যোগাযোগমন্ত্রী বলেন, “মাঠ পর্যায়ের বিএনপি নেতাকর্মীরা নির্বাচন চায়। এ ব্যাপারে সাড়া না দিলে বিএনপির রাজনৈতিক অস্তিত্ব হুমকির মুখে পড়বে বলে আমি মনে করি।”
সাংবাদিকরা যোগাযোগ মন্ত্রীকে অভিনন্দন জানালে তিনি বলেন, “সর্বদলীয় সরকারে আমি আছি কিনা- তা এখনো জানি না। কে থাকছে আর কে থাকছে না- তা সন্ধ্যার মধ্যে পরিষ্কার হয়ে যাবে।”

শেয়ার