বাগেরহাটে টি-টুয়েন্টি টিকিট বিক্রি নিয়ে ব্যাংক কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যাপক অভিযোগ

t20
বাগেরহাট প্রতিনিধি॥ বাগেরহাটে টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের টিকিট বিক্রি নিয়ে বিক্রেতা ও সংশ্লিষ্ট ব্যাংক কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। ২য় দিনের শুরুতে টিকিট শেষ বলে জানিয়ে দিয়েছেন কর্তৃপ। এরপর ােভে ফেটে পড়ে টিকিট প্রত্যাশীরা। বাগেরহাট খানজাহান আলী রোডের অগ্রনী ব্যাংকের আঞ্চলিক শাখা থেকে ১৭ নভেস্বর টিকিট বিক্রি শুরু হয়। এ দিন সকালে বাগেরহাট অগ্রনী ব্যাংকের সামনে টিকিট প্রত্যাশীদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মত। তবে মাত্র ১৬ জনকে ৮৬ টি টিকিট দিয়েছেন কর্তৃপ। এরপর লাইনে দাঁড়িয়ে থাকেন অনেকে। এর মধ্যে রোববার বিকালে টিকিট বিক্রেতারা ব্যাংক কর্মকর্তা সহ তাদের প্রিয়ভাজনদের রাত পর্যন্ত টিকিট দেয়। সোমবার সকালে বিক্রেতারা এসে জানান টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। ঢাকার কোন টিকিট নেই। ব্যাংকের গেটে তালা ঝুলিয়ে টিকিট প্রত্যাাশীদের ভিতরে যেতে বাধা দেয়া হলে বাক বিতন্ডা শুরু হয়। ছবি তুলতে গেলে সাংবাদিকদের বাধা দেয় টিকিট বিক্রেতারা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক টিকিট প্রত্যাশী জানান তিনি ২ দিন দাড়িয়ে থেকেও টিকিট পান নি। ব্যাংকের অসাধূ কর্মকর্তা ও দালালদের যোগসাজসে টিকিট বিক্রি হয়েছে। এই সব দালালদের বিচার চাইলেন টিকিট প্রত্যাশীরা।
এদিকে, টিকিট বিক্রি নিয়ে কর্তৃপরে নাটকীয়তার কারনে ভোগান্তিতে পড়তে হয় বয়স্কভাতা নিতে আসা বৃদ্ধদের। টিকিট বিক্রি চলবে আগামী এক সপ্তাহ পর্যন্ত। কিন্তু এরই মধ্যে টিকিট শেষ হয়ে যাওয়ায় হতাশায় পড়েছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা।

শেয়ার