মিশরের সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ

Egipt
বাংলানিউজ ॥
যুক্তরাজ্যে মিশরের অন্তর্র্বতী সরকার ও সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ তোলা হয়েছে। মুসলিম ব্রাদারহুডের আইনজীবীসহ মানবাধিকার নিয়ে কাজ করা ব্রিটিশ আইনজীবীদের একটি দল এ অভিযোগ তুলেছেন।
বিশিষ্ট আইনজীবীদের ওই দলটি শনিবার একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেন। ওই প্রতিবেদনে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অসংখ্য অপরাধ ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের এ অভিযোগ আনা হয়। আগস্ট থেকে গবেষণা চালিয়ে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতেই তারা এমনটি দাবি করেছেন।
অভিযোগকারী আইনজীবী দলের একজন তৈয়ব আলী জানান, তদন্তে বেরিয়ে এসেছে, চিহ্নিত কোনো গোষ্ঠীকে প্রথমবারেই হত্যা, অবৈধ কারাদণ্ড, নির্যাতন, যন্ত্রণা প্রদান করা হয়েছে। নিখোঁজ করে দেওয়া হয়েছে। এ ধরনের আরও অনেক অমানবিক কাজ করা হয়েছে। উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এসব করা হয়েছে।
তিনি জানান, এসব ঘটনায় জড়িত প্রধান সন্দেহভাজনদের মধ্যে সেনাবাহিনীর উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা ও সৈন্যরাও রয়েছে।
তৈয়ব আলী ছাড়াও অভিযোগকারী আইনজীবীদের দলে রয়েছেন যুক্তরাজ্যের মানবাধিকার বিষয়ক আইনজীবী মাইকেল ম্যান্সফিল্ড, সাউথ আফ্রিকার আন্তর্জাতিক আইন বিশেষজ্ঞ ও লন্ডনভিত্তিক মানবাধিকার সংগঠন আইটিএন সলিসিটরসের শূরা কাউন্সিলের সদস্য জন ডুগার্ড। মুসলিম ব্রাদারহুডের রাজনৈতিক শাখা ফ্রিডম অব জাস্টিস পার্টির (এফজেপি) আইনজীবী।
জুলাই মাসে মোহাম্মদ মুরসিকে প্রেসিডেন্ট পদ থেকে ক্ষমতাচ্যুত করার পর সহিংসতা এবং সেনাবাহিনীর অভিযানে মিশরে অনেক মানুষ নিহত হয়।

শেয়ার