‘ভারতরত্ন’ পাচ্ছেন টেন্ডুলকার

Bharatratna
সমাজের কথা ডেস্ক॥
শচীন টেন্ডুলকারকে দেশের সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার ‘ভারতরত্ন’ দেয়ার দাবিতে ভারতের বহু মানুষ দীর্ঘ দিন ধরে সোচ্চার। তাদের দাবি পূরণ হতে যাচ্ছে অবশেষে। ভারতীয় সরকার টেন্ডুলকারকে ‘ভারতরত্ন’ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ভারতের প্রথম ক্রীড়াবিদ হিসেবে এই পুরস্কার পেতে যাচ্ছেন তিনি। এই অসাধারণ সম্মান মাকে উৎসর্গ করেছেন ব্যাটিং-কিংবদন্তি।

মুম্বাই টেস্ট শেষ হওয়ার কিছুক্ষণ পর ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে টেন্ডুলকারকে ‘ভারতরত্ন’ দেয়ার ঘোষণা আসে।

এক বিবৃতিতে জানানো হয়, “শচীন টেন্ডুলকার নিঃসন্দেহে এক অসাধারণ ক্রিকেটার, একজন জীবন্ত কিংবদন্তি। বিশ্বজুড়ে তিনি কোটি-কোটি মানুষকে অনুপ্রাণিত করেছেন। ১৬ বছরের তরুণ বয়স থেকে গত ২৪ বছরে বিশ্ব জুড়ে ক্রিকেট খেলেছেন টেন্ডুলকার, দেশকে এনে দিয়েছেন অজস্র সম্মান।”

“ক্রীড়াবিশ্বে তিনি ভারতের এক সত্যিকারের প্রতিনিধি। ক্রিকেটে তার অর্জনের সমকক্ষ বা তার রেকর্ডের সঙ্গে তুলনীয় কেউ নেই। তার ক্রীড়াসুলভ মনোভাব অতুলনীয়।”

মহারাষ্ট্রের সপ্তম ব্যক্তি হিসেবে ‘ভারতরত্ন’ হওয়ার সুখবর পাওয়ার পর টেন্ডুলকার বলেন, “এই পুরস্কার আমি আমার মাকে উৎসর্গ করছি।”

টেন্ডুলকারকে ‘ভারতরত্ন’ দেয়ার দাবিতে ভারতের বহু বিখ্যাত ব্যক্তিও সোচ্চার। প্রখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী লতা মঙ্গেশকর তাদের মধ্যে অন্যতম। এক টিভি চ্যানেলকে তিনি বলেন, “দেশের জন্য সে (টেন্ডুলকার) যা করেছে তা খুব কম মানুষই করতে পারে। এই সম্মান তার প্রাপ্য। সে আমাদের সবাইকে গর্বিত করেছে।”

শেয়ার