টি-টোয়েন্টিও জিতে শুরু প্রোটিয়াদের

sauth
বাংলানিউজ॥ টি-টোয়েন্টিতেও ব্যাটিং লজ্জা এড়াতে পারল না পাকিস্তান। বুধবার দুবাইয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ৯ উইকেটে মাত্র ৯৮ রান করে তারা। জবাবে ৩৩ বল বাকি থাকতে ৯ উইকেটের জয় পায় প্রোটিয়ারা। দুই ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল ফাফ ডু প্লেসিস বাহিনী।
প্রায় এক বছর পর আবারও টি-টোয়েন্টিতে নামলেন, নেমেই বল হাতে প্রতিপক্ষের ব্যাটিং লাইনআপ কাঁপিয়ে দিলেন ডেল স্টেইন। এই পেসার নিজের প্রথম ও ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে শোয়েব মাকসূদ (৪) ও অধিনায়ক মোহাম্মদ হাফিজকে খালি হাতে মাঠছাড়া করেন।
আরেক পেসার লোনওয়াবো সোতসোবে চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে শহীদ আফ্রিদিকে সাজঘরে পাঠানোর আগে ইনিংসের প্রথম ওভারে ওপেনার আহমেদ শেহজাদের উইকেটটিও নেন। দুই প্রোটিয়া পেসারের তোপে পড়ে পাকিস্তানের আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত ভেস্তে যায়। ২১ রানেই এই চার উইকেট হারায় তারা।
শোয়েব মালিক, আব্দুল রাজ্জাক ও আব্দুর রেহমানকে নিয়ে ২০ রানের উপরে তিনটি জুটি গড়ে কিছুটা মান বাঁচিয়েছেন উমর আকমল। ৪১ বলে চারটি চার ও এক ছয়ে ৪৯ রানের সেরা ইনিংস খেলে রান আউট হন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান।
পাকিস্তানের সেরা জুটি এসেছে ২৯ রানের, আকমল ও রাজ্জাকের ষষ্ঠ উইকেটে। দ্বিতীয় সেরা ১২ রান শোয়েব মালিকের। রাজ্জাক ও আফ্রিদি সমান ১০ রান করেন। অন্য ব্যাটসম্যানরা দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছাতে পারেননি।
স্টেইন তিনটি উইকেট নেন। দুটি করে পেয়েছেন সোতসোবে ও ইমরান তাহির।
লক্ষ্যে নেমে দলীয় ১৬ রানে হাশিম আমলার (১৩) উইকেটটি নেন সোহেল তানভির। জয়ের বন্দরে পৌঁছাতে আর কোনো উইকেট বিসর্জন দিতে হয়নি প্রোটিয়াদের। কুইন্টন ডি কক ৩৮ বলে ৪৮ রানে ও অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস ৪০ বলে ৩৭ রানে অপরাজিত থেকে দলকে জেতান।

শেয়ার