৫৩০০ টাকা মজুরি মেনেছে মালিকরা

Germent
সমাজের কথা ডেস্ক॥ শুরুতে রাজি না হলেও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ৫৩০০ টাকা মেনে নিয়েছে তৈরি পোশাক শিল্প মালিকরা।
তৈরি পোশাক খাতের শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি তিন হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫ হাজার ৩০০ টাকা নির্ধারণের প্রস্তাব করে সরকার গঠিত মজুরি বোর্ড।
গত ৪ নভেম্বর মজুরি বোর্ডের প্রস্তাব চূড়ান্ত হওয়ার পর তা প্রত্যাখ্যান করে কারখানা বন্ধের হুমকিও দেয় শিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ।
এরপর নতুন মজুরি কাঠামো বাস্তবায়নের দাবিতে গত কয়েকদিন ধরে শ্রমিক অসন্তোষের মধ্যে বুধবার গণভবনে মালিক পক্ষের সঙ্গে বৈঠকে বসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
বৈঠকের পর মজুরি বোর্ডে মালিকপক্ষের প্রতিনিধি আরশাদ জামাল বলেন, “সার্বিক অবস্থা বিবেচনায় আমরা মজুরি বোর্ডের প্রস্তাব মেনে নিয়েছি। গেজেট হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা বাস্তবায়ন করা হবে।”
সমাজের কথা ডেস্ক॥ শুরুতে রাজি না হলেও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ৫৩০০ টাকা মেনে নিয়েছে তৈরি পোশাক শিল্প মালিকরা।
তৈরি পোশাক খাতের শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি তিন হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫ হাজার ৩০০ টাকা নির্ধারণের প্রস্তাব করে সরকার গঠিত মজুরি বোর্ড।
গত ৪ নভেম্বর মজুরি বোর্ডের প্রস্তাব চূড়ান্ত হওয়ার পর তা প্রত্যাখ্যান করে কারখানা বন্ধের হুমকিও দেয় শিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ।
এরপর নতুন মজুরি কাঠামো বাস্তবায়নের দাবিতে গত কয়েকদিন ধরে শ্রমিক অসন্তোষের মধ্যে বুধবার গণভবনে মালিক পক্ষের সঙ্গে বৈঠকে বসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
বৈঠকের পর মজুরি বোর্ডে মালিকপক্ষের প্রতিনিধি আরশাদ জামাল বলেন, “সার্বিক অবস্থা বিবেচনায় আমরা মজুরি বোর্ডের প্রস্তাব মেনে নিয়েছি। গেজেট হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা বাস্তবায়ন করা হবে।”

শেয়ার