টুইটারে বিনিয়োগ শরিয়াহসম্মত

twiter
সমাজের কথা ডেস্ক॥
মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারের শেয়ারে বিনিয়োগ করা ইসলামি শরিয়াহসম্মত বলে জানিয়েছে, ক্যালিফোর্নিয়াভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান আইডিয়ালরেটিংস।

সংবাদ সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, টুইটারের ব্যবসায়িক নীতিমালা মুসলমানদের বিনিয়োগের জন্য ইসলামি বিনিয়োগ নীতিমালার শর্তগুলো পূরণ করে।

ইসলামিক ফান্ড ব্যবস্থায় টোবাকো, অ্যালকোহল ও জুয়ার সঙ্গে জড়িত শেয়ারে বিনিয়োগে নিরুৎসাহিত করা হয়। এছাড়া ইসলামিক অর্থনীতি অর্থের ফটকা ব্যবসা ও সুদ সমর্থন করে না।

আইডিয়ালরেটিংস টুইটারের ব্যবসায়িক কাগজপত্র নিরীক্ষা করে জানিয়েছে, টুইটারে ইসলামি শরিয়া অসমর্থনকারী কোনো নীতিমালা তারা খুঁজে পাননি। এই তালিকায় আগে থেকে রয়েছে ইন্টারনেট জায়ান্ট গুগল ও সফটওয়্যার জায়ান্ট মাইক্রোসফট।

আইডিয়াল রেটিংস তাদের সমীক্ষায় জানিয়েছে, বিশ্বব্যাপী ৪২ হাজার সিকিউরিটির মধ্যে ১৫ হাজার সিকিউরিটিতে ইসলামি শরিয়াহ মোতাবেক বিনিয়োগ করা যাবে।

রয়টার্সের দেওয়া তথ্য অনুসারে, বিশ্বে মোট ৭৮৬টি ইসলামিক মিউচুয়াল ফান্ড আছে। এগুলোর আর্থিক মূল্য ৪ হাজার ৬০০ কোটি ডলার। ২০১২ সালের শেষ পর্যন্ত মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ ছিল ৪ হাজার ১০০ কোটি ডলার।

আইডিয়াল রেটিংসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ ধনিয়া জানান, টুইটারের কাগজপত্র পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়ে দেখা গেছে, এটি বিনিয়োগকারীদের জন্য শরিয়াহ আইন ভঙ্গ করছে না। তাই মুসলিম দেশের বিনোয়োগকারীরা এতে বিনিয়োগ করতে পারেন।

এ খবর প্রকাশের পর গত সপ্তাহে নিউ ইয়র্ক স্টক এক্সচেঞ্জে প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারের দর বেড়েছে।

শেয়ার